দীঘিনালায় বৃদ্ধাকে কুপিয়ে হত্যা

নিজস্ব প্রতিনিধি, দীঘিনালা

দীঘিনালায় এক বৃদ্ধ মহিলাকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। তার নাম মধুমতি চাকমা (৬৫)। গত শুক্রবার রাতে উপজেলার ১নম্বর যৌথ খামার এলাকার সম্বোধন কার্বারীপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। নিহতের স্বামীর নাম ললিত চন্দ্র চাকমা। ঘটনার সময় নিহতের স্বামী ললিত চন্দ্র চাকমা বাড়িতে ছিলেন না। ঘটনার পর পুলিশ রাত সাড়ে এগারোটায় নিহতের লাশ উদ্ধার করে।
গত শুক্রবার দীঘিনালা উপজেলায় বৈশাখী মেলার উদ্বোধন উপলড়্গে ললিত চন্দ্র চাকমা বাড়িতে ছিলেন না। মধুমতি চাকমাকে বাড়িতে একা পেয়ে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা উপর্যুপরি কুপিয়ে চলে যায়। এতে তার মাথা, হাত এবং গলায় জখম হয়। মেলার লটারির ড্র শেষ হলে ললিত চন্দ্র চাকমা বাড়িতে গিয়ে দেখেন, তার স্ত্রী মাটিতে লুটিয়ে পড়ে আছেন। পরে খবর পেয়ে দীঘিনালা থানার পুলিশ রাত সাড়ে এগারোটায় নিহতের লাশ উদ্ধার করে। নিহত মধুমিতা চাকমার এক ছেলে ও দুই মেয়ে রয়েছে। তারা সবাই ঢাকায় পড়াশোনা করছেন।
নিহত মধুমতি চাকমার স্বামী ললিত চন্দ্র চাকমা জানান, প্রতিবেশী দুজনের সাথে জায়গা জমি নিয়ে বিরোধ

আছে। হয়তো তারা আমাকে হত্যা করতে এসেছিলো। আমাকে না পেয়ে আমার স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যা করেছে।
দীঘিনালা থানার অফিসার ইনচার্জ উত্তম চন্দ্র দেব ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, নিহতের মাথা হাত গলায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদনেত্মর জন্যে জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।