দর্শক মাতালেন শিল্পীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক গ্

নগরীর ডিসি হিলের নজরুল মঞ্চে অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ-ভারত নজরুল সঙ্গীত সম্মেলনে দর্শকদের মন মাতালেন শিল্পীরা। শিল্পীদের সঙ্গীত মূর্ছনায় অভিভূত হয়ে পড়েন দর্শকরা। এ উপমহাদেশের কিংবদন্তী নজরুল সঙ্গীত শিল্পী সোহরাব হোসেন স্মরণে চট্টগ্রাম জেলা শাখার নজরুল একাডেমি ও কলকাতার অগ্নিবীণা সংস’া যৌথভাবে বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলায় ১০দিন ব্যাপী এ সম্মেলনের আয়োজন করে। সম্মেলনের সপ্তম দিনের আয়োজনে গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় শুরু হয় এ অনুষ্ঠান।
নজরুল সঙ্গীত জগতের এক উজ্জ্বল নক্ষত্র সোহরাব হোসেনের স্মরণে এ আয়োজনে কলকাতা থেকে ১৬ জন শিল্পী আসেন এবং ৮ জন শিল্পী নজরুল সঙ্গীত পরিবেশন করেন। এছাড়া চট্টগ্রামের ১৪ জন শিল্পী সঙ্গীত পরিবেশন করেন। চট্টগ্রামের শিল্পীরা নজরুল একাডেমি চট্টগ্রাম জেলা শাখার ও ভারতের শিল্পীরা অগ্নিবীণা সংস’ার কর্মী। কলকাতার শিল্পীদের মধ্যে ছিলেন অনুসূয়া মুখোপাধ্যায়, সুসীমা দাস মজুমদার, সুকন্যা কর্মকার, শ্রেয়া দত্ত রায়, দেবশ্রী মুখোপাধ্যায়, রুমানা মাইতি, শরবী কর চৌধুরী, পৌষালী রায়, দীপা দাশ, সুমনা লায়েক, রাজশ্রী ভট্টাচার্য্য, শুভেন্দু দাস, সুজিত লায়েক, নরেন্দ্রনাথ সরকার, শংকর কুমার মন্ডল, কামাক্ষা লাল দে, মঞ্জুয়া চক্রবর্তী, চন্দ্রনাথ ব্যানার্জী ও রবীন্দ্রনাাথ মুখার্জী। চট্টগ্রামের শিল্পীদের মধ্যে ছিলেন শর্মিলা বড়-য়া, আলী হোসেন শাওন, নাইমা তাসনিম, হেলাল উদ্দিন, মনিকা নাজনীন, হাসান ইসমাইল প্রমুখ।
বাংলাদেশের নজরুল সঙ্গীত শিল্পী সোহরাব হোসেন ১৯২২ সালের ৯ এপ্রিল ভারতের পশ্চিমবঙ্গের নদীয়া জেলার রানাঘাট শহরের পাশে আয়েশতলা পল্লী গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৪৭ সালে দেশ ভাগের পর সোহরাব হোসেন ঢাকায় চলে আসেন। প্রখ্যাত লোকসংগীত শিল্পী আব্বাসউদ্দিনের সাথে দেশের নানা স’ানে ঘুরে ঘুরে তিনি গান করেছিলেন। মাটির পাহাড়, যে নদী মরুপথে, গোধূলির প্রেম, শীত বিকেল, এ দেশ তোমার আমার সহ নানা দর্শকপ্রিয় চলচ্চিত্রে তিনি প্লে-ব্যাক করেন। নজরুল সঙ্গীতে বিশেষ অবদান রাখায় এ বরেণ্য শিল্পী অর্জন করেছেন স্বাধীনতা পদক, চ্যানেল আই সম্মাননা, নজরুল একাডেমী পদকসহ নানা সম্মাননা। ২০০৯ সালে তিনি কবি নজরুল বিশ্ববিদ্যালয় থেকেও সম্মাননা লাভ করেন। ২০১২ সালের ২৭ ডিসেম্বরে তিনি ঢাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেন। এ বরেণ্য শিল্পীর স্মরণে বাংলাদেশ-ভারতের যৌথ অংশগ্রহণে এ অনুষ্ঠানটিতে প্রধান অতিথি ছিলেন মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। অনুষ্ঠানে মেয়র উপসি’ত শিল্পী ও দর্শকদের আরো নিবিড়ভাবে নজরুল চর্চার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, জ্ঞান বিকাশে নজরুল চর্চার কোন বিকল্প হতে পারে না।