সংবাদ সম্মেলনে পেয়ারম্নলের অভিযোগ

তৈয়ব’র নেতৃত্বে হামলা, ইন্ধন ভাণ্ডারির

নিজস্ব প্রতিবেদক

‘সৈয়দ নজিবুল বশর মাইজভা-ারি বারবার নৌকা ও আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের অপমান করে নৌকা প্রতীকে নির্বাচন করছেন। কিন’ এলাকাবাসী ও সাধারণ ভোটাররা তার পড়্গে নেই। নিশ্চিত পরাজয় আঁচ করতে পেরে তিনি সন্ত্রাসীদের নিয়ে আওয়ামী লীগের নেতাদের ওপর হামলা করেছেন। সন্ত্রাসী তৈয়বের নেতৃত্বে হামলা করা হয়েছে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নাজিম উদ্দিন মহুরী ও সাংগঠনিক
সম্পাদক কাজী মাহমুদুল হকের ওপর।’
সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে গতকাল মঙ্গলবার বিকালে ষোলশহর এলাকার নিজ বাসায় সংবাদ সম্মেলন করে এসব অভিযোগ আনেন চট্টগ্রাম ২ (ফটিকছড়ি) আসনে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী এটিএম পেয়ারম্নল ইসলাম। প্রসঙ্গত সৈয়দ নজিবুল মাইজভা-ারি এ আসনে মহাজোট প্রার্থী। সংবাদ সম্মেলনে এটিএম পেয়ারম্নল ইসলাম অভিযোগ করে বলেন, গত সোমবার তৈয়ব, দিদারসহ কিছু সন্ত্রাসী সৈয়দ নজিবুল বশর মাইজভা-ারীর পড়্গে আওয়ামী লীগের নেতা এবং প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর ওপর পরিকল্পিত হামলা চালিয়েছে।
আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী এ টি এম পেয়ারম্নল ইসলাম বলেন, নজিবুল বশরের অতীত রাজনীতির ইতিহাস আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের হত্যা করানোর ইতিহাস। গত পাঁচ বছরে আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক কর্মকা-কে ভেঙে ভঙ্গুর করে দিয়েছেন।
সংবাদ সম্মেলনে উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মুজিবুল হক চৌধুরী বলেন, দলীয় শৃংখলা ভঙ্গের দায়ের দল থেকে অব্যাহতি প্রাপ্ত গুটি কয়েক নেতাকে নিয়ে নজিবুল বশর মাইজভা-ারি এলাকায় অশানত্ম পরিবেশ সৃষ্টির পাঁয়তারা করছেন।
উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নাজিমুদ্দিন মুহুরী বলেন, নিজের পরাজয় নিশ্চিত জেনেই নজিবুল বশর সন্ত্রাসী তৈয়বকে দিয়ে আমাকে ও এটিএম পেয়ারম্নল ইসলামকে হত্যার উদ্দেশ্য এ হামলা চালিয়েছে।
সংবাদ সম্মেলনে উপসি’ত ছিলেন ফটিকছড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মো.মুজিবুল হক চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক নাজিম উদ্দিন মহুরী, যুবলীগ আহ্বায়ক মুজিবুর রহমান স্বপন, চেয়ারম্যান আবু তালেব চৌধুরী, চেয়ারম্যান রম্নসত্মম আলী, চেয়ারম্যান শফিউল আলম, সাবেক চেয়ারম্যান ফারম্নকুল আজম, আমান উলস্নাহ চৌধুরী লিটন, অ্যাডভোকেট সালামত উলস্নাহ, জাবেদ জাহাঙ্গীর টুটুল,শিমুল চন্দ্র নাথ, রাইসুল ইসলাম চৌধুরী এমিল, জয়নাল আবেদীন, ,কাজী গোলাম সরোয়ার সুরম্নজ প্রমুখ।