তিনটি হাইটেক পার্ক হচ্ছে চট্টগ্রামে আজ প্রসত্মাবিত জমি পরিদর্শন করবেন আইসিটি মন্ত্রী মোসত্মাফা জব্বার

নিজস্ব প্রতিবেদক

বাণিজ্যিক রাজধানী চট্টগ্রামে একটি ‘আইটি ভিলেজ’ নির্মাণ কাজ চলমান থাকলেও এখানে নেই কোন হাইটেক পার্ক। গত বছরের জুলাই মাসে নগরীতে একটি অনুষ্ঠানে চট্টগ্রামে তিনটি হাইটেক পার্ক নির্মাণ করার কথা জানিয়েছিলেন বাংলাদেশ হাইটেক কর্তৃপড়্গের ব্যবস’াপনা পরিচালক (এমডি) হোসনে আরা বেগম। গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে এ তিনটি হাইটেক পার্ক নির্মাণে প্রসত্মাবিত জমি পরিদর্শনে চট্টগ্রাম এসেছেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোসত্মাফা জব্বার। তিনি আজ শুক্রবার সকাল থেকে দুপুর পর্যনত্ম চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়, সীতাকু-ের সিলিমপুর ও নগরীর চান্দগাঁওয়ে হাইটেক পার্কের জন্য প্রসত্মাবিত জমি পরিদর্শন করবেন। এ সময় মন্ত্রীর সঙ্গে আইসিটি সিনিয়র সচিব শ্যামসুন্দর সিকদার উপসি’ত থাকার কথা রয়েছে।
এদিকে তিনটি হাইটেক পার্কের মধ্যে নগরীতে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের (চসিক) জায়গায় একটি হাইটেক পার্ক নির্মিত হতে যাচ্ছে। ইতোমধ্যে জমি বরাদ্দের সম্মতি, প্রয়োজনীয় দলিলপত্রাদি ও খসড়া চুক্তিপত্র বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপড়্গের কাছে পাঠিয়েছে চসিক। আজ শুক্রবার দুপুর সাড়ে ১২টায় চান্দগাঁওয়ে হাইটেক পার্কের জন্য চসিক প্রসত্মাবিত জায়গা পরিদর্শন করবেন আইসিটি মন্ত্রী। প্রাপ্ত তথ্যমতে, পাঁচলাইশ থানাধীন (বর্তমানে চান্দগাঁও) চান্দগাঁও এবং চর রাঙ্গামাটিয়া মৌজার বিএফআইডিসি রোড সংলগ্ন ১১ দশমকি ৫৫ একর জমি হাইটেক পার্ক কর্তৃপড়্গকে দেওয়ার প্রসত্মাব রয়েছে।
চসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সামসুদ্দোহা বলেন, ‘হাইটেক নির্মাণে চান্দগাঁওয়ে জায়গা দেবে সিটি করপোরেশন। আর ব্যয় করবে বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপড়্গ। আয় ভাগ হবে সমানে-সমানে। আগ্রাবাদ-সিঙ্গাপুর মার্কেটের আইটি ভিলেজের চুক্তিপত্রের আদলে খসড়া চুক্তিপত্র বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপড়্গের কাছে পাঠানো হয়েছে। মন্ত্রী শুক্রবার (আজ) জায়গা পরিদর্শন করবেন। চুক্তিপত্র নিয়ে আরো আলোচনা হবে।’
প্রসঙ্গত, চসিক মালিকাধীন নগরীর আগ্রাবাদ-সিঙ্গাপুর মার্কেটে আইটি ভিলেজ স’াপন কাজ শুরম্ন করেছে বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপড়্গ। গত বছরের ১৮ জুলাই এ বিষয়ে চসিক ও হাইটেক পার্ক কর্তৃপড়্গের মধ্যে চুক্তিপত্র সই হয়েছে।