ফজলে করিম এমপির সংবর্ধনা

তার বঙ্গবন্ধু কৃষি পদক লাভ চট্টগ্রামবাসীর জন্য গৌরবের

নিজস্বা প্রতিনিধি, রাউজান
বঙ্গবন্ধু কৃষি পদক পাওয়ায় রেল স্টেশন চত্বরে দেয়া সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এবি এম ফজলে করিম চৌধুরীকে ক্রেস্ট তুলে দেন মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন-সুপ্রভাত
বঙ্গবন্ধু কৃষি পদক পাওয়ায় রেল স্টেশন চত্বরে দেয়া সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এবি এম ফজলে করিম চৌধুরীকে ক্রেস্ট তুলে দেন মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন-সুপ্রভাত

বঙ্গবন্ধু কৃষি পদক পাওয়ায় রাউজানের এমপি ফজলে করিম চৌধুরীকে গতকাল দুপুরে চট্টগ্রাম রেলওয়ে স্টেশন চত্বরে রাউজানবাসীর উদ্যোগে বিশাল সংবর্ধনা দেয়া হয়।
অনুষ্ঠানে অতিথিরা বলেছেন, বঙ্গবন্ধু কৃষি পদক পেয়ে এবি এম ফজলে করিম চৌধুরী রাউজানকে নয় সমগ্র চট্টগ্রামকে গর্বিত করেছেন।
সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, জাতির জনক এই দেশের কৃষকদের ভালবাসতেন। বঙ্গবন্ধুর আদর্শে উজ্জীবিত হয়ে এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী রাউজানে কৃষির উন্নয়ন ও সম্প্রসারণে অবদান রেখেছেন। একারণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাকে বঙ্গবন্ধু কৃষি পদক প্রদানের মাধ্যমে বর্তমান সরকার যে কৃষকবান্ধব তা প্রমাণিত করেছেন ।
রাউজান উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি কামাল উদ্দিন আহম্মদ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন। সঞ্চালনা করেন উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন সম্পাদক রাউজান পৌরসভার প্যানেল মেয়র বশির উদ্দিন খান ও ও উরকিরচর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সৈয়দ আবদুল জব্বার সোহেল। এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নুরুল আলম চৌধুরী।
সংবর্ধনার জবাবে এবি এম ফজলে করিম চৌধুরী বলেন, আমার পদক পাওয়ার পেছনে রয়েছে রাউজানের মানুষের অবদান। তারা আমাকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করায় আমি রাউজানের কৃষকদের উন্নয়নে কাজ করার সুযোগ পেয়েছি। আমার পাওয়া পুরস্কার রাউজানবাসীর গৌরব। তিনি বলেন এক সময়ের সন্ত্রাসের জনপদ হিসাবে পরিচিত রাউজানকে এখন দেশের মধ্যে একটি মডেল উপজেলা হিসাবে গড়ে তোলা হয়েছে।
অনুষ্ঠানে আরো উপসি’ত ছিলেন চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি কাজী আবদুল ওহাব, উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ, রাউজান উপজেলা চেয়ারম্যান এহসানুল হায়দার চৌধুরী বাবুল, উত্তর জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী দিলু আরা ইউছুফ, রাউজান উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান নুর মোহাম্মদ, চট্টগ্রাম রেলওয়ের স্টেশন ম্যানেজার আবুল কালাম আজাদ, চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি আলী আব্বাস, চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সাধারন সম্পাদক শুকলাল দাশ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আনোয়ারুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক আলমগীর আলী, সাবেক চেয়ারম্যান শাহ আলম চৌধুরী, জসিম উদ্দিন চৌধুরী, রাউজান পৌরসভা আওয়ামী লীগের সভাপতি নজরুল ইসলাম চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম শাহজাহান, রাউজান উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জমির উদ্দিন পারভেজ, সাধারন সম্পাদক জসিম উদ্দিন, চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম, আবদুর রহমান চৌধুরী, প্রিয়তোষ চৌধুরী, নুরুল আবছার বাশিঁ, বিএম জসিম উদ্দিন হিরু, তসলিম উদ্দিন, আব্বাস উদ্দিন আহম্মদ, সাহাবু উদ্দিন আরিফ, ভুপেশ বড়য়া, রোকন উদ্দিন, রাউজান পৌরসভার কাউন্সিলর শওকত হাসান চৌধুরী, জানে আলম জনি, অ্যাডভোকেট সমীর দাশগুপ্ত, আজাদ হোসেন, অ্যাডভোকেট দিলিপ কুমার চৌধুরী, সাবেক চেয়ারম্যান রাশেদুল আলম চৌধুরী, আবদুল মোমেন, আবদুল মজিদ, নসরুল্ল্যাহ চৌধুরী লালু প্রমুখ।