উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সমাবেশে বক্তারা

তারেক জিয়ার সর্বোচ্চ শাস্তি পাওয়া উচিত

। বিজ্ঞপ্তি

চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এম.এ সালাম বলেন, ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার উদ্দেশ্য ছিল তৎকালীন বিরোধীদলীয় নেত্রী বর্তমান প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যা করে আওয়ামী লীগকে নেতৃত্ব শূন্য করা।
সেদিনের গ্রেনেড হামলায় আওয়ামী লীগ নেত্রী আইভি রহমানসহ ২৪ জন আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মী নিহত হয়েছিল। ২৪ জন মানুষ হত্যার বিচারের রায়ে হামলার মূল পরিকল্পনাকারী তারেক রহমানের সর্বোচ্চ শাস্তি হওয়া উচিত ছিল। তিনি গতকাল দোস্ত বিল্ডিং চত্বরে চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত সমাবেশে বক্তব্যে একথা বলেন।
সংগঠনের সহসভাপতি মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক মো. মঈনুদ্দিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সহসভাপতি জিতেন্দ্র প্রসাদ নাথ মন্টু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. আবুল কালাম আজাদ, মো. জসিম উদ্দিন, ইউনুস গণি চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক ও পৌর মেয়র দেবাশীষ পালিত, দপ্তর সম্পাদক মহিউদ্দিন বাবলু, প্রচার সম্পাদক জসিম উদ্দিন শাহ, আইন সম্পাদক অ্যাডভোকেট ভবতোষ নাথ, কার্যনির্বাহী সদস্য মুক্তিযোদ্ধা মো. ইউনুস, মঞ্জুরুল আলম চৌধুরী, আলহাজ জাফর জাফর আহমেদ, ফোরকান উদ্দিন আহমদ, কেন্দ্রীয় যুবলীগের সহসম্পাদক মো. সেলিম উদ্দিন, উত্তর জেলা মহিলা আওয়ামী লীগ সভানেত্রী দিলোয়ারা ইউসুফ, কৃষক লীগ সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম, যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক এস.এম রাশেদুল আলম, মহিলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদিকা অ্যাডভোকেট বাসন্তী প্রভা পালিত, সহসভানেত্রী সৈয়দা রিফাত আক্তার নিশু, কেন্দ্রীয় যুবলীগ সদস্য রাশেদ খান মেনন, শেখ ফরিদ চৌধুরী, যুব মহিলা লীগ আহবায়িকা রওশন আরা রত্না, যুগ্ম আহবায়িকা অ্যাডভোকেট জোবাইদা সরোয়ার নিপা, জেলা ছাত্রলীগ সাবেক সাধারণ সম্পাদক মো. আবু তৈয়ব প্রমুখ