তারিখ না পেছালেও ঐক্যফ্রন্ট নির্বাচনে আসতো : কাদের

সুপ্রভাত ডেস্ক

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, নির্বাচনের তারিখ না পেছালেও ঐক্যফ্রন্ট নির্বাচনে আসতো। গতকাল সোমবার দুপুরে ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ মনত্মব্য করেন তিনি।
ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘নির্বাচনের তারিখ এক সপ্তাহ পেছানোর সিদ্ধানত্মকে আওয়ামী লীগ সমর্থন করে। এই সিদ্ধানত্ম নেওয়ার এখতিয়ার শুধু নির্বাচন কমিশনের। এখানে আওয়ামী লীগের কিছু করার নেই। নির্বাচনের তারিখ না পেছালেও ঐক্যফ্রন্ট নির্বাচনে আসতো, এটা আমরা জানতাম। কারণ, নির্বাচনে আসা তাদের সিদ্ধানত্ম। তাদের দাবির পরিপ্রেড়্গিতে নির্বাচন কমিশনের সিদ্ধানত্মকে স্বাগত জানাই। সব দলের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করার জন্য নির্বাচন কমিশন ইতিবাচক সিদ্ধানত্ম নিয়েছে।’ খবর বাংলা ট্রিবিউন।
ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, ‘এবার দলের মনোনয়ন দেওয়ার ড়্গেত্রে বোর্ড বিচার-বিশেস্নষণ করে দেবে। প্রার্থীদের যোগ্যতা নির্ধারণে কয়েকটি সার্ভে করা হয়েছে। বিদেশি সংস’াও সার্ভে করে তথ্য আপডেট করে দিয়েছে। ১৪ নভেম্বর থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের ইন্টারভিউ শুরম্ন হবে। সভানেত্রী শেখ হাসিনা সরাসরি প্রার্থীদের ইন্টারভিউ নেবেন।’
আওয়ামী লীগের টিকিট পাওয়া মানেই বিজয়ী। এটা ভ্রানত্ম ধারণা উলেস্নখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘কিছু কিছু পত্রিকায় এসেছে আওয়ামী লীগের টিকিট পাওয়া মানেই বিজয়ী। এটা একটা ভ্রানত্ম ধারণা। যারা এটা মনে করেন তারা বড়মাপের ভুল করছেন।’
এ সময় আরও উপসি’ত ছিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ, জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক মহিবুল হাসান নওফেল প্রমুখ।