ইডিইউতে এতিম শিশুদের ইফতার

তরুণ শিক্ষার্থীরা সমাজকে আলোর পথ দেখাবে

সুপ্রভাত ডেস্ক

ইস্ট ডেল্টা ইউনিভার্সিটি (ইডিইউ) উপাচার্য অধ্যাপক মুহাম্মদ সিকান্দার খান বলেছেন, পবিত্র রমজান কেবল ধর্মীয়ভাবে খারাপ কাজ থেকে বিরত ও উত্তম কাজে নিয়োজিত হওয়ার শিক্ষাই দেয় না, এই মাসের তাৎপর্য ভবিষ্যৎ দিনগুলিতেও সৎ থেকে নিজেকে ভাল কাজে জড়িত রাখার ডাক দিয়ে যায়।
তিনি বলেন, রোজার বিধান দেওয়া হয়েছে পবিত্রতা অর্জনের জন্য। গুণাহ বর্জন করে আল্লার সন্তুষ্টি অর্জনের মাধ্যমে নিজেকে জান্নাতের উপযোগী করার জন্য।
রোববার নগরীর প্রবর্তক মোড়ে ইডিইউর বর্ধিত একাডেমিক ভবনে ইফতার মাহফিলে এসব কথা বলেন তিনি। খবর বাংলানিউজ এর।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য বলেন, আমাদের আগামী দিনের দেশ গড়ার কারিগর তরুণ শিক্ষার্থীরা ভাল কাজের মাধ্যমে নিজেদের আত্মিক উন্নতি করবেন। পাশাপাশি সমাজকে আলোর পথ দেখাবেন-এটাই আমার প্রত্যাশা। তিনি বলেন, রমজান যেসব কাজ করা থেকে সবাইকে দূরে থাকার পরামর্শ দেয় তা যদি আমরা মেনে চলি, তবে সত্যিকার অর্থেই সবাই একজন মুমিন মানুষ হয়ে সারাজীবন বেঁচে থাকতে পারবো।
ইডিইউর অ্যাসোসিয়েট ডিন ড. মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিনের সভাপতিত্বে ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন ট্রেজারার অধ্যাপক সামস-উদ-দোহা, ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার সজল বড়ুয়া, প্রক্টর ও ইংরেজি বিভাগের চেয়ারম্যান শাহ আহমেদ রিপন, শিক্ষার্থী আলফাজ হাশেমী নিশান প্রমুখ।
অনুষ্ঠানে ইডিইউর সকল শিক্ষক, কর্মকর্তা, শিক্ষার্থী, তাদের অভিভাবক ছাড়াও চট্টগ্রামের লালদীঘির একটি এতিখানার শিশুরা উপস্থিত ছিলেন। এতে মোনাজাত পরিচালনা করেন মাওলানা আবদুর রহিম শুক্কুর।