তরুণদের সাহিত্য চর্চায় উৎসাহিত করতে হবে

নিজস্ব প্রতিবেদক

কবি ও কথাসাহিত্যিক অধ্যাপক এলিজাবেথ আরিফা মুবাশশিরা বলেছেন, নতুন প্রজন্মকে বইমুখী করতে অভিভাবকদের ভূমিকা পালন করতে হবে। তিনি বলেন, তরুণ প্রজন্মকে সাহিত্য চর্চায় উৎসাহিত করতে হবে। তাহলে এরা বিপথগামী হবে না। চট্টগ্রামে এখন সাহিত্য চর্চা অনেক বেড়েছে। তবে সাহিত্য চর্চা যত বৃদ্ধি পাবে, সাহিত্যের পাঠকও তত বাড়তে থাকবে। গতকাল রোববার বিকাল সাড়ে ৩ টায় চট্টগ্রাম একাডেমির স্বাধীনতা উৎসব ও লেখক-পাঠক সম্মিলনে শিক্ষার্থীদের সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন। সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতায় অংশ নেয় শত শত শিক্ষার্থী।
চট্টগ্রাম শিল্পকলা একাডেমি প্রাঙ্গণে পাঁচদিনব্যাপী স্বাধীনতা উৎসবের গতকাল তৃতীয় দিনে সভাপতিত্ব করেন বেতার ব্যক্তিত্ব ফজল হোসেন।
অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উৎসবের সমন্বয়কারী এস এম আবদুল আজিজ, অধ্যাপক আবিদা সুলতানা চৌধুরী, অধ্যাপক বিকিরণ বড়-য়া, অধ্যাপক গোফরান উদ্দীন টিটু, ড. সৌরভ শাখাওয়াত, গল্পকার রুনা তাসমিনা, লেখক বিপুল পাল। অধ্যাপক এলিজাবেথ আরিফা মুবাশশিরা অভিভাবকদের প্রতি তাদের সন্তানদের হাতে বই তুলে দেওয়ার আহ্বান জানান।
তিনি বলেন, সন্তানকে কিভাবে গড়ে তুলতে হবে, তার ভাবনা প্রথমেই অভিভাবকদের। বই থেকে ছাত্রছাত্রীরা শিখবে সবকিছু।
এদিকে সন্ধ্যায় অনুষ্ঠিত হয় সৃষ্টি কালচারাল ইনস্টিটিউট এর পরিবেশনায় নৃত্য উৎসব।
আজকের অনুষ্ঠান
আজ সোমবার বিকেল ৩টায় রয়েছে কবিতা পাঠ। বিকেল ৪ টায় মুক্তিযোদ্ধা সম্মাননা। প্রফেসর রীতা দত্তের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থাকবেন চবি উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী।
আলোচক থাকবেন লেখক সেলিম সোলায়মান, ডা. কাজী আইনুল হক ও সাখাওয়াত হোসেন মজনু। এরপর থাকবে দলীয় পরিবেশনা।