অ্যাকাডেমিক কাউন্সিলের সভায় চবি উপাচার্য

তরম্নণ মেধাবী গবেষকগণ নতুন শতাব্দীর অগ্রপথিক

বিজ্ঞপ্তি

‘তরম্নণ-মেধাবী গবেষকগণ দেশের কান্ডারি, নতুন শতাব্দীর অগ্রপথিক। লাখো শহীদের রক্তের বিনিময়ে অর্জিত মহান স্বাধীনতার সুফল ঘরে তুলতে সকল প্রকার কুসংস্কার-কুপম-কতা-সংকীর্ণতা, পশ্চাৎপদতা এবং অন্ধকার যুগের অবসান ঘটিয়ে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর আদর্শের অসাম্প্রদায়িক-গণতান্ত্রিক-মানবিক বাংলাদেশ বিনির্মাণে তরম্নণদেরই দায়িত্বভার গ্রহণ করতে হবে। সুতরাং, তীব্র প্রতিযোগিতাপূর্ণ এ বিশ্বে শিড়্গা-গবেষণা, ব্যবসা-বাণিজ্য-শিল্প, কৃষি, তথ্য-প্রযুক্তি, চিকিৎসাসেবা, ক্রীড়া-সংস্কৃতি সকল ড়্গেত্রে বিজ্ঞানমনস্ক মানবসম্পদ উৎপাদনের কোন বিকল্প নেই।’
গতকাল বেলা ১১টায় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাকাডেমিক কাউন্সিল এর ২৩৬তম সভায় সভাপতির বক্তব্যে উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী এসব কথা বলেন।
চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. শিরীণ আখতার উপসি’ত ছিলেন। অ্যাকাডেমিক কাউন্সিলের সচিব রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) কে এম নুর আহামদ এর এজেন্ডাভিত্তিক উপস’াপনায় সভায় বক্তব্য দেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিনবৃন্দ, বিভাগীয় সভাপতি এবং ইনস্টিটিউট ও গবেষণা কেন্দ্রের পরিচালকবৃন্দ এবং সদস্যবৃন্দ।
সভার শুরম্নতে এ বিজয়ের মাসে শহীদদের সম্মানে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। সভায় ১২ জনকে পিএইচ-ডি এবং ১৭ জনকে এমফিল, ২ জনকে এমডি এবং ১ জনকে এমএস ডিগ্রি প্রদানের সুপারিশ করা হয়। উক্ত ডিগ্রিসমূহ অর্জনকারী গবেষকবৃন্দ এবং তাদের সুপারভাইজার ও কো-সুপারভাইজারবৃন্দকে আনত্মরিক অভিনন্দন জ্ঞাপন করা হয়।