ভাটিয়ারিতে বিএসবিএস হাসপাতাল উদ্বোধন

জাহাজভাঙা শ্রমিকদের জন্য প্রথম হাসপাতাল

নিজস্ব প্রতিবেদক
বাংলাদেশ শিপ ব্রেকার্স অ্যাসোসিয়েশনের হাসপাতালের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে দিদারুল আলম এমপি, শিল্প মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব পরাগ, যুগ্ন সচিব ইয়াসমিন সুলতানা ও বিএসবিএ সদস্যবৃন্দ-সুপ্রভাত
বাংলাদেশ শিপ ব্রেকার্স অ্যাসোসিয়েশনের হাসপাতালের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে দিদারুল আলম এমপি, শিল্প মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব পরাগ, যুগ্ন সচিব ইয়াসমিন সুলতানা ও বিএসবিএ সদস্যবৃন্দ-সুপ্রভাত

বাংলাদেশ শিপ ব্রেকার্স অ্যাসোসিয়েশন এর নিজস্ব অর্থায়নে ভাটিয়ারিতে ‘বিএসবিএ হাসপাতাল’ এর উদ্বোধন করা হয়েছে গতকাল। দেশে এই প্রথম বারের মত জাহাজভাঙা শিল্পের শ্রমিকদের জন্য হাসপাতাল নির্মাণ করা হলো।
সীতাকুণ্ডের ভাটিয়ারিতে ৪৪ শতক জায়গার ওপর প্রতিষ্ঠিত এবং সাততলা বিশিষ্ট ২৫০ শয্যার হাসপাতালটি উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম-৪ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ দিদারুল আলম ও শিল্প মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব পরাগ। এ সময় শিল্প মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব ইয়াসমীন সুলতানাও উপসি’ত ছিলেন।
শিপ ব্রেকার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি আলহাজ এম.এ. তাহেরের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন, বিএসবি এর নির্বাহী কমিটির সদস্য জহিরুল ইসলাম রিংকু। বক্তব্য রাখেন এনইউএম জাহাঙ্গীর চৌধুরী, আলহাজ মোহম্মদ সালাউদ্দিন, মাস্টার কাশেম, বিএসবিএর সচিব বোরহান উদ্দিন আহমেদ চৌধুরী ও ডা. বি কে দাশ।
সংসদ সদস্য আলহাজ দিদারুল আলম বলেন, ‘দেশে এই প্রথম শিপ ব্রেকার্স অ্যাসোসিয়েশন তাদের নিজেদের খরচে হাসপাতাল নির্মাণ করলো। এ হাসপাতাল শ্রমিকদের কল্যাণে দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে। সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টা থাকলে এক সময় এ হাসপাতাল মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পরিণত হবে। এলাকার দুস’ ও গরিব মানুষ যাতে যথাযথ সেবা পায় তা নিশ্চিত করতে হবে।’ এ জন্য একটি দুস’ ফান্ড গঠন করার জন্য তিনি কর্তৃপক্ষকে আহ্বান জানান।

বাংলাদেশ শিপ ব্রেকার্স অ্যাসোসিয়েশন এর নিজস্ব অর্থায়নে ভাটিয়ারিতে ‘বিএসবিএ হাসপাতাল’ এর উদ্বোধন করা হয়েছে গতকাল-সুপ্রভাত
বাংলাদেশ শিপ ব্রেকার্স অ্যাসোসিয়েশন এর নিজস্ব অর্থায়নে ভাটিয়ারিতে ‘বিএসবিএ হাসপাতাল’ এর উদ্বোধন করা হয়েছে গতকাল-সুপ্রভাত
শিল্প মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব পরাগ শিপ ইয়ার্ডগুলোর প্রশংসা করে বলেন, ‘ইদানীং শিপব্রেকিং ইয়ার্ডগুলো শিল্প হিসেবে দেশের দৃষ্টি আকর্ষণ করছে এবং অর্থনীতিতে ভালো অবদান রাখছে।’
সভাপতির বক্তব্যে আলহাজ এম.এ তাহের বলেন, ‘পরিবেশ দূষণ যাতে না হয় শিপ ইয়ার্ডগুলো এখন খুবই সতর্কতা অবলম্বন করছে। আমরা দূষণ নিয়ন্ত্রণের এর জন্য আরও চেষ্টা চালিয়ে যাবো।’
স্বাগত বক্তব্যে অ্যাসোসিয়েশনের নির্বাহী কমিটির সদস্য জহিরুল ইসলাম রিংকু বিএসবিএর আহ্বানে সাড়া দিয়ে সকল শিপইয়ার্ড মালিক এ হাসপাতাল নির্মাণে এগিয়ে আসায় সবাইকে ধন্যবাদ জানান। তিনি বলেন, ‘আমরা এভাবে এগিয়ে এলে অনেক কঠিন কাজও সহজে করতে পারবো।’
হাসপাতালটিতে প্রায় ২৫ জন ডাক্তার নিয়মিত থাকবেন। এর মধ্যে ৪ জন সব সময় জরুরি বিভাগে কর্মরত থাকবেন। হাসপাতালটিতে একটি অ্যাম্বুলেন্স, চারটি অত্যাধুনিক অপারেশন থিয়েটারসহ প্রায় সব ধরনের আধুনিক যন্ত্রপাতি স’াপন করা হয়েছে। হাসপাতালে মহিলা ও শিশুদের চিকিৎসার জন্য বিশেষ ব্যবস’া রাখা হয়েছে।
উল্লেখ্য, উদ্বোধন উপলক্ষে আগামী ১৪, ১৫ ও ১৬ নভেম্বর ভারতের এ্যাপোলো হাসপাতালের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক দ্বারা ফ্রি চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হবে বিএসবিএ হাসপাতালে।

আপনার মন্তব্য লিখুন