‘জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবেলায় প্রয়োজন টেকসই উন্নয়ন’

বিজ্ঞপ্তি

বাংলাদেশ বন গবেষণা ইনস্টিটিউট (বিএফআরআই) এ ‘জলবায়ু পরিবর্তন জনিত প্রভাব মোকাবেলার জন্য বাংলাদেশ বন গবেষণা ইনস্টিটিউট, চট্টগ্রাম এলাকায় অবকাঠামোসমূহ উন্নয়ন’ শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় ভূমি উন্নয়নের মাধ্যমে পুনঃনির্মাণকৃত ২৫০ মি. রাসত্মার উদ্বোধন করা হয়।

নির্মাণকৃত রাসত্মাটির  উদ্বোধন করেন আলমগীর মোহাম্মদ মনসুরম্নল আলম, অতিরিক্ত সচিব, পরিবেশ বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়।

এ সময় বিএফআরআই এর পরিচালক ড. মো. মাসুদুর রহমান, প্রকল্প পরিচালক মো. জাহাঙ্গীর আলম, পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মো. আলমগীরএবং বিএফআরআই এর বিভাগীয় কর্মকর্তাসহ অন্য গবেষকগণ উপসি’ত ছিলেন।

অতিরিক্ত সচিব বলেন, ‘জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবেলায় টেকসই উন্নয়নের বিকল্প নেই।’

প্রকল্প পরিচালক বলেন, ‘বর্ষা মৌসুমে এ রাসত্মাটি যাতায়াতের অযোগ্য হয়ে পড়তো। কোমর সমান পানিতে বিএফআরআই এর কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ এ এলাকার বাসিন্দারা দুর্ভোগে পড়তো। রাসত্মাটির পুনঃনির্মাণ ও আধুনিকায়নের মাধ্যমে এখানকার জলাবদ্ধতার যেমন টেকসই সমাধান হবে তেমনি রাসত্মার দুইপার্শ্বে বৃড়্গ রোপণের ফলে এর সৌন্দর্য পথচারীদের আকর্ষণ করবে।’

উদ্বোধন শেষে বিএফআরআই এর কর্মপরিকল্পনা ও অগ্রগতি বিষয়ে ইনস্টিটিউটের সম্মেলন কড়্গে একটি মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় অতিরিক্তি সচিব প্রকল্পের আওতায় গৃহীত ভূমি উন্নয়নের মাধ্যমে ২৫০মি. রাসত্মা নির্মাণের পাশাপাশি অত্র প্রতিষ্ঠানের অফিস ও আবাসিক এলাকায় জলাবদ্ধতা হতে মুক্তি পেতে ৮১০ মি. আরসসিসি ও ব্রিকসের ড্রেন নির্মাণ, পাহাড়ের খালি ভূমি ব্যবস’াপনা ও বনায়নের নিমিত্তে ৩০,০০০ চারা রোপণের মাধ্যমে ভূমির ড়্গয় রোধ, পরিবেশের ভারসাম্য ও জীব-বৈচিত্র্য রড়্গা করা, পাহাড় ধস প্রতিরোধে ২৮৬মি. আরসিসি রিটেইনিং দেয়াল নির্মাণসহ সামগ্রিক বিষয়ের অগ্রগতিতে সনেত্মাষ প্রকাশ করেন এবং জুন ২০২০ সালের মধ্যে প্রকল্পের অসমাপ্ত কাজ সম্পন্ন করার ব্যাপারে প্রকল্প পরিচালকের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

এছাড়া তিনি বিএফআরআই এর গবেষণা কার্যক্রমসহ সার্বিক বিষয়ে প্রয়োজনীয় দিকনির্দেশনা প্রদান করেন।