জরুরি ভিত্তিতে শুরু হচ্ছে টাইগারদের ক্যাম্প

সুপ্রভাত ক্রীড়া ডেস্ক

শ্রীলঙ্কা, বাংলাদেশ ও ভারতের অংশগ্রহণে আগামী ৬ মার্চ থেকে শ্রীলঙ্কায় অনুষ্ঠেয় ত্রিদেশীয় নিদাহাস ট্রফিকে সামনে রেখে টাইগারদের অনুশীলন ক্যাম্পের সম্ভাব্য তারিখটি ছিল আগামী ২৪ কিংবা ২৮ ফেব্রুয়ারি। কিন’ ঘরের মাটিতে সদ্য সমাপ্ত দুটি সিরিজে স্বাগতিকদের মন খারাপ দেয়া পারফরম্যান্স দেখে দু’দিন আগেই অনেকটা জরুরি ভিত্তিতে অনুশীলন ক্যাম্প ডেকেছে বিসিবি। খবর বাংলানিউজ।
যেখানে অংশ নেবেন ১৪ জন পেসার ও ৫ জন ব্যাটসম্যান। কারণ একটাই লঙ্কানদের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজে পেসার ও কয়েক টাইগারের ব্যাটিং আপ টু দ্য মার্ক ছিল না। গতকাল মঙ্গলবার রাজধানীর বেঙ্মিকো কার্যালয়ে একথা জানান বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।
তিনি বলেন, ‘সামনে একটা বিরাট চ্যালেঞ্জিং ট্যুর আছে। সময় খুব কম। নরম্যালি ক্যাম্প শুরুর কথা ছিল ২৪ বা ২৮ তারিখে। আমি এমনই শুনেছি। কিন’ আমার কাছে মনে হয়েছে এটা পর্যাপ্ত না। আমরা শ্রীলঙ্কার মাটিতে খেলেতে যাচ্ছি। তত্ত্বগতভাবে আমরা যেটা খেলেছি তার চাইতেও কঠিন হওয়ার কথা। ওখানে ভারতের সাথে খেলতে হবে। ভারত দারুণ ফর্মে আছে। এমন শক্তিশালী দলের সাথে খেলতে যাচ্ছি এরকম গা ছাড়া ভাবে হবে না। আমাদের ঘুরে দাঁড়াতে চেষ্টা করতে সেজন্য আমি কোর্টনি ওয়ালশকে ইতোমধ্যেই বলে দিয়েছি ১৪ জন পেসারকে নিয়ে পরশুদিন (২২ ফেব্রুয়ারি) থেকেই ক্যাম্প ডাকতে।’
পাপন আরও যোগ করেন, ‘যারা প্রিমিয়ার ডিভিশন খেলছে তাদেরকেও ক্যাম্পে ডেকেছি। কয়েকজন ব্যাটসম্যান যাদের পারফরম্যান্স আরেকটু ইমপ্রুভ করা যেতে পারে। মোট ১৯ জনকে নিয়ে পরশু দিন থেকে মিরপুর ক্রিকেট একাডেমিতে ক্যাম্প চালু করছি। গেল সিরিজে আমাদের ফাস্ট বোলিংটা হতাশাজনকই ছিল। ব্যাটিংয় মনে হয়নি সবাই সাচ্ছন্দে খেলেছে, টি-টোয়েন্টিতে বিশেষ করে।’
জাতীয় দলের ক্যাম্প শুরুর পাশাপাশি প্রিমিয়ার লিগ নিয়েও ভাবতে হচ্ছে পাপনকে। কেননা গেল ৫ ফেব্রুয়ারি থকে শুরু হওয়া ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ ক্রিকেটে জাতীয় দলের অনেক ক্রিকেটারই বিভিন্ন ক্লাবের হয়ে খেলছেন। ‘যেদিন প্রিমিয়ার লিগ থাকবে সেদিন প্লেয়ারদের ছেড়ে দেয়া হবে। ক্লাবের কোনো অসুবিধা হবে না। কিন’ বেশি গুরুত্বপূর্ণ এই সিরিজটা।