জমি অধিগ্রহণের অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক, কক্সবাজার

কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার বড়ইতলী ইউনিয়নের রসুলাবাদ গ্রামে রেল অধিগ্রহণের জমির প্রাপ্য টাকা প্রকৃত মালিককে না দিয়ে যোগসাজসের মাধ্যমে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এই ব্যাপারে কক্সবাজার জেলা প্রশাসক বরাবরে একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। অভিযোগে জানা যায়, উক্ত গ্রামের মৃত আহমদ কবির সিকদারের স্ত্রী মাবিয়া খাতুন রেল অধিগ্রহণের জমির প্রকৃত মালিক হিসেবে ৩,৬,৭ ধারা নোটিশ প্রাপ্ত হয়ে মালিকানা সংক্রানত্ম কাগজপত্রসহ গত ১৬ জানুয়ারি ৯৬০/১৯ মূলে ড়্গতিপুরণের টাকা পাওয়ার জন্য সংশিস্নষ্ট কর্তৃপড়্গের কাছে আবেদন করেন। আবেদনের প্রেড়্গিতে চকরিয়া সার্কেলের সার্ভেয়ার মাসুদ রানা উক্ত জমি সার্ভে করতে যান। সার্ভেয়ারকে উক্ত জমি উপজেলার হারবাং ইউনিয়নের মৃত গোলাম মোর্শেদ চৌধুরীর ছেলে মাসুদ পারভেজ যোগসাজস করে বিগত ২ সেপ্টেম্বর ড়্গতিপূরণের আট লাখ পঁচাত্তর হাজার তিন’শ আঠার টাকা আত্মসাত করেন। মাবিয়া খাতুনের ছেলে সরওয়ার আলম জানান, ইতোপূর্বে এই জমির অধিগ্রহণের টাকার জন্য আমি সার্ভেয়ারের সাথে কমপড়্গে ৪০/৫০বার দেখা করি। তিনি আমাকে নানা প্রলোভনে জমি অধিগ্রহণের টাকার জন্য যোগাযোগ করতে বলেন ও অনৈতিক কর্মকান্ডে লিপ্ত হতে বলেন। এতে আমি রাজি না হওয়ায় তিনি ভূয়া দলিল সৃজনকারীদের সাথে যোগসাজস করে প্রশাসনকে বিভ্রানত্ম করে টাকা উত্তোলন করে নিতে সহয়তা করেন।এ ব্যাপারে অভিযুক্ত সার্ভেয়ারের সাথে তার বক্তব্য নেওয়ার জন্য যোগাযোগ করা হলে সংশিস্নষ্ট কর্তৃপড়্গ, তিনি সপ্তাহ খানেক আগে চট্টগ্রামে বদলি হয়েছেন বলে জানিয়েছেন। অধিগ্রহণের টাকা আত্মসাতকারীদের বিরম্নদ্ধে দ্রম্নত ব্যবস’া গ্রহণের জন্য সংশিস্নষ্ট কর্তৃপড়্গের নিকট আবেদন জানিয়েছেন ভূক্তভোগী পরিবার।