ছুটির দিনে মনোনয়নপত্র নিলেন দুজন বোয়ালখালী আসনে মনোনয়নপত্র নিলেন ১৪ জন

নিজস্ব প্রতিবেদক

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলড়্গে চট্টগ্রামে শুক্রবার ছুটির দিনে দুজন সম্ভাব্য প্রার্থী নির্বাচন কমিশনের মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। দুজনই নিয়েছেন চট্টগ্রাম-৮ বোয়ালখালী আসনের জন্য। তারা হলেন নগর বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি আবু সুফিয়ান ও বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের প্রার্থী সেতাব উদ্দিন মুহাম্মদ আবদুস সামাদ। গতকাল ছিল মনোনয়নপত্র বিতরণের ষষ্ঠ দিন। এই দুজনসহ গত ছয় দিনে চট্টগ্রাম-৮ বোয়ালখালী আসন থেকে মোট ১৪ জন সম্ভাব্য প্রার্থী মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। এর মধ্যে আওয়ামী লীগের ৪ জন, বিএনপির ২ জন, স্বতন্ত্র ৫ জন, বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি (ন্যাপ) ১ জন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের ১ জন এবং বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের ১ জন সম্ভাব্য প্রার্থী রয়েছেন।
এর আগে আওয়ামী লীগ প্রার্থী হিসেবে এই আসন থেকে মনোনয়নপত্র নিয়েছেন নগর আওয়ামী লীগের কোষাধ্যড়্গ ও চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপড়্গের (সিডিএ) চেয়ারম্যান আবদুচ ছালাম, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক মন্ত্রী এবং নগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি নুরম্নল ইসলাম বিএসসি, দড়্গিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোসলেম উদ্দিন আহমেদ ও নুরম্নল ইসলাম বিএসসির পুত্র মুজিবুর রহমান। বিএনপির প্রার্থী হিসেবে এই আসন থেকে মনোনয়নপত্র নিয়েছেন কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি ও সাবেক পররাষ্ট্র মন্ত্রী এম মোরশেদ খান। এছাড়া স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে সাংসদ মঈন উদ্দিন খান বাদল, এমদাদুল হক, কালুরঘাট সেতু বাসত্মবায়ন পরিষদের আহ্বায়ক মো. আবদুল মোমিন, মো. শরীফ উদ্দিন খান, হাসান মাহমুদ চৌধুরী; জাসদ প্রার্থী হিসেবে মঈন উদ্দিন খান বাদল, বাংলাদেশ আওয়ামী পার্টির বাপন দাশগুপ্ত এবং ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মো. ফরিদ খান বোয়ালখালী আসন থেকে মনোনয়নপত্র নিয়েছেন।
গত ৮ নভেম্বর বৃহস্পতিবার রাতে প্রথমবার তফসিল ঘোষণার পর ১১ নভেম্বর রোববার থেকে চট্টগ্রামে নির্বাচন কমিশনের মনোনয়ন ফরম বিতরণ শুরম্ন হয়। গত ছয় দিনে চট্টগ্রামে মোট ৮৭টি মনোনয়নপত্র বিতরণ করা হয়েছে। মনোনয়নপত্র নিয়েছেন মোট ৮৪ জন সম্ভাব্য প্রার্থী। ১২ নভেম্বরের পুনঃতফসিল অনুসারে মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ সময় ২৮ নভেম্বর; মনোনয়নপত্র বাছাই ২ ডিসেম্বর; প্রার্থীতা প্রত্যাহারের শেষ সময় ৯ ডিসেম্বর এবং ভোট গ্রহণ হবে ৩০ ডিসেম্বর।