রাউজান

ছালামত উল্ল্যাহ উচ্চ বিদ্যালয়

আদর্শ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পূর্ণ রূপ

নিজস্ব প্রতিনিধি, রাউজান

নতুন ভবনে রাউজান ছালামত উল্ল্যাহ উচ্চ বিদ্যালয় রাউজানের আদর্শ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে উঠেছে। রাউজান উপজেলা সদরে ১৯৬৬ সালে সুলতান পুর বড়বাড়ি পাড়ার শিক্ষানুরাগী মরহুম মাওলানা ছালামত উল্লাহ ৭৬ শতক জমিতে প্রতিষ্ঠা করেন রাউজান ছালামত উল্লাহ উচ্চ বিদ্যালয়। রাউজান ছালামত উল্লাহ উচ্চ বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার পর প্রথমে টিনের ছাউনি বাঁশের বেড়া দিয়ে স্কুলের পাঠদান শুরু করে। পরে এলকার লোকজনের সহায়তায় সেমিপাকা ঘরে শিক্ষার্থীদের পাঠদান করা হয়। ১৯৯৮ সালে মরহুম সাইফুদ্দিন কাদের চৌধুরী একটি দ্বিতল পাকা ভবন নির্মাণ করে দেয়। স্কুলের শিক্ষার্থীর চেয়ে পাঠদান কক্ষ কম হওয়ায় পাকা ভবনে পাঠদান করার পরও সেমিপাকা ঘরে শিক্ষার্থীদের পাঠদান করতে হতো। গত ২০১০ সালের ২৪ মার্চ স্কুল পরিচালনা কমিটির সভাপতির দায়িত্ব নেন রাউজান পৌরসভার সাবেক মেয়র শিক্ষানুরাগী মরহুম শফিকুল ইসলাম চৌধুরী। গত ২০১৬ সালের ২৭ অক্টোবর রাউজান পৌরসভার সাবেক মেয়র স্কুল পরিচালনা কমিটির সভাপতি শফিকুল ইসলাম চৌধুরীর মৃত্যু হলে ২০১৬ সালের ২৪ নভেম্বর স্কুল পরিচালনা কমিটির সভাপতির দায়িত্ব নেয় তাঁর পুত্র তরুণ শিক্ষানুরাগী আলহাজ্ব সাইফুল ইসলাম চৌধুরী রানা। আলহাজ্ব সাইফুল ইসলাম চৌধুরী রানা স্কুল পরিচালনা কমিটির সভাপতির দায়িত্ব নেওয়ার পর স্কুলের পুরাতন সেমি পাকা ঘর ভেঙে সংসদ সদস্য এবি এম ফজলে করিম চৌধুরীর সহায়তায় এবি এম ফজলে করিম চৌধুরী একাডেমিক ভবন, আলহাজ্ব আলী আকবর চৌধুরী গ্রন’াগার ভবন, খোরশেদ জামান হল, মাল্টিমিডিয়া ক্লাসরুম নির্মাণ করা হয়। গত ২০১৮ সালের ৬ জানুয়ারি তৎকালীন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ রাউজান ছালামত উল্ল্যাহ উচ্চ বিদ্যালয়ের এবি এম ফজলে করিম চৌধুরী একাডেমিক ভবন উদ্বোধন করেন। নবনির্মিত আলী আকবর চৌধুরী গ্রন’াগার ভবন, খোরশেদুজ্জমান হল, মাল্টিমিডিয়া ক্লাসরুম ভবনের উদ্বোধন করেন সংসদ সদস্য এবি এম ফজলে করিম চৌধুরী। নতুনভাবে নির্মিত একাডেমিক ভবন থেকে শিক্ষার্থী ও শিক্ষকেরা জনগণের চলাচলের সড়ক পার হয়ে অপর একটি ভবনে যেতে হতো। নতুন একাডেমিক ভবন থেকে পুরাতন ভবনে যাওয়ার জন্য সড়কের উপর নির্মাণ করা হয় ফ্লাইওভার। স্কুলের মাঠের পরিধি বাড়ানো হয়। সাইফুল ইসলাম চৌধুরীর রানার ঐকান্তিক ইচ্ছায় রাউজান ছালামত উল্লাহ উচ্চ বিদ্যালয় রাউজানের আদর্শ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে উঠেছে বলে স্কুল পরিচালনা কমিটির সদস্য তসলিম উদ্দিন জানান। স্কুল পরিচালনা কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব সাইফুল ইসলাম চৌধুরী রানা বলেন রাউজান ছালামত উল্ল্যাহ উচ্চ বিদ্যালয়ের জন্য শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর থেকে আরো একটি ভবন নির্মাণ কাজের টেন্ডার করা হয়েছে। শীঘ্রই নির্মাণকাজ শুরু হবে। রাউজান ছালামত উল্লাহ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক স্বপন কুমার বণিক জানান বর্তমানে নতুন ভর্তি করা শিক্ষার্থীসহ ৯শ ৮২ জন শিক্ষার্থী লেখাপড়া করছে। স্কুলের শিক্ষার্থীদের পাঠদানের জন্য রয়েছে ১৮ জন শিক্ষক। ১৮ জন শিক্ষকের মধ্যে ১১ জন এমপিওভুক্ত অবশিষ্ট ৭ জন শিক্ষককে স্কুল কতৃপক্ষ বেতন ভাতা প্রদান করে। রাউজান উপজেলা সদরের রাউজান ছালামত উল্লাহ উচ্চ বিদ্যালয়ের অনেক কৃতী শিক্ষার্থী চিকিৎসক, প্রকৌশলি সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের উচ্চ পদস’ কর্মকর্তার পদে রয়েছে। রাঙামাটি জেলা পরিষদের সদস্য অংশ্রু প্রু চৌধুরী মারমা, চিকিৎসক নাজমুন নেছা মীম, নসরত উল্ল্যাহ স্বপন, ওমর ফারুক রাউজান ছালামত উল্ল্যাহ উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। পুলিশ সুপার প্রিয়তোষ ঘোষ রাউজান ছালামত উল্ল্যাহ উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী।
রাউজান ছালামত উল্ল্যাহ উচ্চ বিদ্যালয়ে রাউজান উপজেলা সদরের সুলতানপুর বড়বাড়ি পাড়া, নন্দীপাড়া, সাহানগর, দলিলাবাদ, ছত্রপাড়া, দাশপাড়া, পালিতপাড়া, বেরুলিয়া, ঢেউয়াপাড়া, হাজিপাড়া, ডাবুয়া ইউনিয়নের হিংগলা, সুড়ঙ্গা, দক্ষিণ হিংগলা, কলমপতি, কেউকদাইর এলাকার ছেলেমেয়েরা লেখাপড়া করে। তরুণ শিক্ষানুরাগী আলহাজ্ব সাইফুল ইসলাম চৌধুরী রাউজান ছালামত উল্ল্যাহ উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতির দায়িত্ব পালন করা ছাড়াও সুলতানপুর ছিটিয়াপাড়া সাজিনা চৌধুরী উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও ছিটিয়াপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন।