রোহিঙ্গাদের অতীত নিয়ে

‘ছাই থেকে ফুল’

সুপ্রভাত ডেস্ক

দেশি ও আন্তর্জাতিক সদস্যদের সমন্বয়ে, টানা ৫ মাস ব্যয় করে নির্মিত হলো পূর্ণদৈর্ঘ্য তথ্যচিত্র ‘ছাই থেকে ফুল’। যার ইংরেজি নাম ‘ব্লসম ফ্রম এসস’। যুক্তরাষ্ট্রের ব্লাম ফ্যামিলি ফাউন্ডেশনের ব্যানারে এটি নির্মাণ করেছেন বাংলাদেশের নোমান রবিন। রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর অতীত ইতিহাসনির্ভর এই তথ্যচিত্রে আরাকান রাজ্যের ১২০০ বছরের ইতিহাস সংক্ষেপে তুলে ধরা হয়েছে। যার মধ্যে মুসলমান তথা রোহিঙ্গা মুসলমান জনগোষ্ঠীর আরাকান রাজ্যে অবস’ান ও অধিকারের বিষয়টি সচিত্র ফুটে উঠেছে। উল্লেখ্য, আন্তর্জাতিক অঙ্গনে মিয়ানমারের বর্তমান সরকার প্রধান অং সান সু চি বিভিন্ন সময়ে বলে থাকেন, ‘আরাকানে রোহিঙ্গা বলে কোনও গোষ্ঠী নেই এবং কোনোকালে এদের অস্তিত্ব ছিল না, এরা বাংলাদেশের নাগরিক।’ নির্মাতা নোমান রবিন জানান, সু চির এই কথাটি যে সম্পূর্ণ ভুল তা ‘ছাই থেকে ফুল’ তথ্যচিত্রটির মাধ্যমে ঐতিহাসিক দলিলসহ প্রমাণ করে দেওয়া হয়েছে। নোমান রবিন বলেন, ‘উখিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ৩ জন বিভিন্ন বয়সের প্রতিভাবান শিশু ও তাদের পরিবারের গল্প উঠে এসেছে এই চলচ্চিত্রে। এই শিশুগুলো রোহিঙ্গা ক্যাম্পের অপ্রতুল ও কুটিল পরিবেশে বসবাস করছে, লেখাপড়া ও খেলাধুলার প্রতি তাদের ভীষণ আগ্রহ। ফুটফুটে নিষ্পাপ শিশুগুলোর আশা, আকাঙ্ক্ষা, আনন্দ, বেদনা, আরাকানে ফেলে আসা করুণ ইতিহাসের গল্প নিয়েই নির্মিত হয়েছে তথ্যচিত্রটি।’ ব্লাম ফ্যামিলি ফাউন্ডেশনের মার্কিন প্রযোজক এলেক্স বলেন, ‘এই তথ্যচিত্রটি নিয়ে পৃথিবীব্যাপী অনুষ্ঠিত সব ছোট-বড় চলচ্চিত্র উৎসবে প্রদর্শন করতে চাই।’