চবিতে শেখ রাসেল শিশু পার্ক উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপাচার্য

চিরঞ্জীব শেখ রাসেল বাঙালির নয়নমণি

চবি দক্ষিণ ক্যাম্পাসে শেখ রাসেল শিশু পার্ক উদ্বোধন শেষে মুনাজাত করছেন চবি উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী, উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. শিরীণ আখতার ও অন্যরা
চবি দক্ষিণ ক্যাম্পাসে শেখ রাসেল শিশু পার্ক উদ্বোধন শেষে মুনাজাত করছেন চবি উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী, উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. শিরীণ আখতার ও অন্যরা

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় দক্ষিণ ক্যাম্পাসে নব নির্মিত শেখ রাসেল শিশু পার্ক-এর উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী।
এ সময় চবি উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. শিরীণ আখতার, রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর ড. মোহাম্মদ কামরুল হুদা, উক্ত শিশু পার্ক নির্মাণ কমিটির আহ্বায়ক প্রফেসর ড. মোহাম্মদ জসীম উদ্দিন, সোহরাওয়ার্দী হলের প্রভোস্ট প্রফেসর ড. মোহাম্মদ বশির আহাম্মদ, ইতিহাস বিভাগের সভাপতি প্রফেসর ড. মোহাম্মদ মাহবুবুল হক, চবি ক্লাব (ক্যাম্পাস)-এর সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর ড. মো. আবদুল মান্নান, শারীরিক শিক্ষা বিভাগের পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) মো. মোয়াজ্জেম হোসেন এবং প্রকৌশল দপ্তরের কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
উপাচার্য তাঁর ভাষণে বলেন, বাঙালি জাতির ইতিহাসে সবচেয়ে বেদনাদায়ক ও শোকাবহ দিন ‘৭৫ এর ১৫ আগস্ট। সেই কালো রাতে স্বাধীনতা বিরোধী পরাজিত চক্র হায়েনার দল মহাকালের মহানায়ক হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি স্বাধীন বাংলাদেশের মহান স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে নির্মমভাবে হত্যা করে। এ বর্বর হিংস্র নরপশুরা সেদিন বঙ্গবন্ধুর শিশুপুত্র নিস্পাপ শেখ রাসেলকেও হত্যা করতে দ্বিধাবোধ করেনি। তারা মহান মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতার ইতিহাসকে বিকৃত করার মাধ্যমে মহান মুক্তিযুদ্ধের আদর্শ ও চেতনাকে বাঙালির হৃদয় থেকে মুছে ফেলতে চেয়েছিল। কিন্তু মহান সৃষ্টিকর্তার অপার মহিমায় তারা সফল হয়নি। বঙ্গবন্ধু তনয়া প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার বলিষ্ট, সুযোগ্য ও গতিশীল নেতৃত্বে আজকের বাংলাদেশ বিশ্ব মানচিত্রে উন্নয়নের রোল মডেল। তিনি আরো বলেন, বাংলার ইতিহাস থেকে বঙ্গবন্ধু পরিবারের অবদান ও স্মৃতি মুছে ফেলা যাবে না। তাই চিরঞ্জীব শেখ রাসেল আমাদের মাঝে বেঁচে আছেন, বেঁচে থাকবেন। শেখ রাসেল এর স্মৃতিকে চিরঅম্লান করে রাখার প্রয়াসে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে বসবাসরত শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারীদের শিশু সন্তানদের শরীরচর্চা, খেলাধুলা ও বিনোদনের জন্য একটি নান্দনিক শিশু পার্ক নির্মাণ করা হয়েছে। যা আজ উদ্বোধন করা হলো।
উপাচার্য এ শিশু পার্কের সার্বিক ব্যবস্থাপনা এবং সুরক্ষার দায়িত্বে নিয়োজিত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের আন্তরিক ও যত্নবান হওয়ার নির্দেশ প্রদান করেন। পরে উপাচার্য উপস্থিত সকলকে সাথে নিয়ে শিশু পার্কটি ঘুরে দেখেন।
অনুষ্ঠানে বঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারের শহীদ সদস্যবর্গের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ মুনাজাত পরিচালনা করেন চবি দক্ষিণ ক্যাম্পাস মসজিদের নায়েবে ইমাম মাওলানা আবুল হাসান মুহাম্মদ নাঈমুল্লাহ। বিজ্ঞপ্তি