ঈদে নির্বিঘ্ন যাতায়াত নিশ্চিতকরণ

চার নির্দেশনা বাস্তবায়নে চসিককে মন্ত্রণালয়ের চিঠি

নিজস্ব প্রতিবেদক

আসন্ন ঈদ-উল-আজহা উপলক্ষে মহাসড়কে যাত্রী সাধারণের যাতায়াত নিরাপদ ও নির্বিঘ্ন করার কার্যকর ব্যবস’া ও পদক্ষেপ গ্রহণ করতে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনকে চিঠি দিয়েছে স’ানীয় সরকার মন্ত্রণালয়। এতে ৪টি নির্দেশনা বাস্তবায়নের জন্য চসিককে নির্দেশ দিয়েছে মন্ত্রণালয়। গত বৃহস্পতিবার ওই চিঠি হাতে পেয়েছে চসিক।

জানা যায়, আসন্ন ঈদ-উল-আজহা উদযাপন উপলক্ষে মহাসড়কে যাত্রী সাধারণের যাতায়াত নিরাপদ ও নির্বিঘ্ন করার জন্য সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়/বিভাগ/অধিদপ্তর/কর্তৃপক্ষ/সংস’া/প্রতিষ্ঠান ও পরিবহন মালিক-শ্রমিক সমিতিকে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য অনুরোধ করে গত ২ আগস্ট চিঠি দেয় সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়। ওই চিঠিতে ৩৩টি নির্দেশনা উল্লেখ করা হয়েছে। পরবর্তীতে

গত ৫ আগস্ট একই বিষয়ে ব্যবস’া নিতে স’ানীয় সরকার মন্ত্রণালয়কে চিঠি দেয় সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়। সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের যুগ্মসচিব ড. মো. কামরুল আহসান স্বাক্ষরিত ওই চিঠিতে উল্লেখিত ৩৩ নির্দেশনার মধ্যে ৫, ১০, ২৯ ও ৩১ নম্বর ক্রমিকে গৃহিত সিদ্ধান্ত বিশেষভাবে বাস্তবায়নে পদক্ষেপ গ্রহণ করার জন্য চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনকে নির্দেশনা প্রদানের জন্য স’ানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিবকে নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হয়।

স’ানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের উপসচিব আ ন ম ফয়জুল হক স্বাক্ষরিত ওই চিঠিতে বর্ণিত ৫, ১০, ২৯ ও ৩১ নম্বর ক্রমিকে গৃহিত সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের পরবর্তী প্রয়োজনীয় ব্যবস’া গ্রহণ করার জন্য চসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তাকে নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হয়।
চসিককে দেওয়া মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনাগুলো হলো, যানবাহন চলাচলের সুবিধার্থে মহানগরী এবং জাতীয় ও আঞ্চলিক মহাসড়কের উপর ও উভয় পাশের অস’ায়ী বা ভাসমান বাজার অপসারণের ব্যবস’া গ্রহণ করতে হবে; মহানগরীতে যত্রতত্র গাড়ি পার্কিং বন্ধে নিয়মিত মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করতে হবে; ঈদ-উল-আজহা উপলক্ষে কোন অবস’াতেই জাতীয় ও আঞ্চলিক মহাসড়কের উপর ও পার্শ্বের স’ান গরুর হাট বসানোর জন্য ইজারা প্রদান করা যাবে না এবং কোরবানির পশুর বর্জ্য যাতে মহাসড়কের উপর অথবা পাশে না ফেলে নির্দিষ্ট স’ানে ফেলা হয় সে ব্যাপারে কড়া দৃষ্টি রাখতে হবে।