চবিতে হলের নামফলক থেকে খালেদা জিয়ার নাম মুছে ফেলায় প্রতিবাদ

চবি সংবাদদাতা

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক ছাত্রী হল ‘ দেশনেত্রী খালেদা জিয়া হলের’ নামফলক থেকে ছাত্রলীগ কর্তৃক বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার নাম মুছে দেয়ার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে শিড়্গকদের সংগঠন সাদা দল, শিড়্গক ফোরাম জিয়া পরিষদ, জাতীয়তাবাদী শিড়্গক ফোরাম ও শাখা ছাত্রদল। গতকাল বুধবার বিকালে গণমাধ্যমে পাঠানো সংগঠনগুলোর মুখপাত্রদের স্বাড়্গরিত এক বিবৃতিতে এ প্রতিক্রিয়া জানানো হয়।
সাদা দলের সংগঠনটির মুখপাত্র ড. আতিয়ার রহমান স্বাড়্গরিত এই বিবৃতিতে জানানো হয়, ‘এ ঘটনার সাথে জড়িতদের গ্রেফতারের মাধ্যমে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টানত্মমূলক শাসিত্মর ব্যবস’া করতে হবে। অন্যদিকে একই ঘটনার প্রতিবাদে ৪৪ শিড়্গ কের স্বাড়্গর সম্বলিত বিবৃতি গণমাধ্যমে পাঠিয়েছে জিয়া পরিষদ বিশ্ববিদ্যালয় শাখা। এদিকে, বিএনপিপন’ী শিড়্গ কদের একটি প্রতিনিধি দল বিষয়টি নিয়ে গতকাল বুধবার সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যে সঙ্গে সাড়্গাৎ করেছেন। তারা বিষয়টি অবহিত করে নাম ফলক পুনঃস’াপন করার দাবি জানিয়েছেন। এ প্রসঙ্গে চবি উপাচার্য ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকজন সিনিয়র শিড়্গক আমার সঙ্গে দেখা করেছেন। তারা কোনো সংগঠনের কিনা আমি জানি না।’
এছাড়া নাম মুছে ফেলার ঘটনার পর মঙ্গলবার বিবৃতি প্রদান করেন বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রদলের সভাপতি খুরশেদুল আলম ও সাধারণ সম্পাদক মো. শহিদুল ইসলাম শহিদ। উলেস্নখ্য, গত মঙ্গলবার বিকালে ‘দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার হলের’ নামফলক তুলে ফেলেন ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। এছাড়া ছাত্রীদের হলের সড়কে থাকা সাইনবোর্ড থেকে সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীর নাম মুছে ফেলা হয়। এ সময় বীর প্রতীক তারামন বিবির নামে হলটি নামকরণের দাবি জানায় তারা।