চবিতে ছাত্রলীগে ফের সংঘর্ষ আহত ৩ আটক ১, হলে তল্লাশি: রাম দা উদ্ধার

চবি সংবাদদাতা

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের দু’পক্ষের মধ্যে ফের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।
গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা ১টার দিকে সোহরাওয়ার্দী ও শাহ আমানত হলের মাঝামাঝি সড়কে ছাত্রলীগ সমর্থিত শাটল ট্রেনের বগিভিত্তিক গ্রুপ ‘সিএফসি’ ও ‘বিজয়’ এর কর্মীদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার পর পুলিশ ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জাহাঙ্গীর জীবনকে আটক করে।
এ ঘটনায় তিনজন আহত হন। আহতরা হলেন, রাজনীতি বিজ্ঞান বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র ইয়াসিন রুবেল, বাংলাদেশ স্টাডিস বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্র আখতার হোসেন ও মো. আবীর। সংঘর্ষের পর গতকাল বিকেল চারটা থেকে সন্ধ্যা ছয়টা পর্যন্ত শাহ আমানত, সোহরাওয়ার্দী, আলাওল, আব্দুর রব ও এ এফ রহমান হলে তল্লাশি চালানো হয়। এসময় চারটি রামদা, এক বস্তা পাথর ও বেশ কিছু লাঠিসোঁটা উদ্ধার করা হয়।
বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর আলী আজগর চৌধুরী বলেন, বহিরাগত কেউ আছে কিনা তা জানতে আবাসিক হলে তল্লাশি চালানো হয়েছে। কিছু রামদা, লাঠিসোঁটা ও পাথর পেয়েছি। বিশৃঙ্খলাকারীদের দ্রুত শনাক্ত করে আইনানুগ ব্যবস’া নেওয়া হবে।
ক্যাম্পাসকে কেউ অসি’তিশীল করতে চাইলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস’া নিতে পুলিশ প্রশাসনকে নির্দেশ দেয়া আছে বলে জানান তিনি।
আটকের বিষয়ে জানতে চাইলে হাটহাজারী সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার আবদুল্লাহ আল মাসুম বলেন, ‘বিশৃঙ্খলায় জড়িত থাকায় জাহাঙ্গীর জীবনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে।’
উল্লেখ্য, একুশে আগস্টের গ্রেনেড হামলার রায় পরবর্তী আনন্দ মিছিলকে কেন্দ্র করে গত বুধবার বেলা তিনটার দিকে প্রক্টর কার্যালয়ের সামনে সংঘর্ষে জড়ায় ছাত্রলীগের বিজয় ও সিএফসি গ্রুপ। পরবর্তীতে তা সোহরাওয়ার্দী হল ও শাহ আমানত হলে ছড়িয়ে পড়ে। বিকাল থেকে রাত ১০ পর্যন্ত দফায় দফায় সংঘর্ষে ৮ জন ছাত্রলীগ কর্মী আহত হন।