চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল ক্যানসারের রেডিওথেরাপি সেবার উদ্বোধন

নিজস্ব প্রতিবেদক

চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে দীর্ঘ ১০ মাস পর ক্যানসারের রেডিওথেরাপি সেবা চালু হয়েছে। ১২ কোটি টাকা ব্যয়ে স’াপিত রেডিওথেরাপি (কোবাল্ট-৬০) মেশিনটি গতকাল মঙ্গলবার আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করা হয়।
সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন রেডিওথেরাপি সেবা কার্যক্রম উদ্বোধন করেন। উদ্বোধনের পর ক্যানসার আক্রানত্ম রোগীদের রেডিয়েশন দেওয়া শুরম্ন হয়।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, ‘নোয়াখালী থেকে টেকনাফ পর্যনত্ম বৃহত্তর চট্টগ্রামের ক্যানসার রোগীরা এখন থেকে চমেক হাসপাতালে কম খরচে সেবা পাবেন। এ মেশিনটি রোগীদের জন্য আশীর্বাদস্বরম্নপ। এখন থেকে ক্যানসারের কোনো রোগীকে বিদেশ কিংবা চট্টগ্রামের বাইরে যেতে হবে না।’
অনুষ্ঠানে চমেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহসেন উদ্দিন আহমদ বলেন, ক্যানসারের চিকিৎসা অনেক ব্যয়বহুল। চট্টগ্রামে এ রোগের ভালো কোনো চিকিৎসা না থাকায় এতোদিন রোগীদের অনেক ভোগানিত্ম পোহাতে হতো। অনেকেই টাকার অভাবে যথাযথ চিকিৎসা থেকে বঞ্চিত হতো। এই মেশিনটি চালু হওয়ার ফলে অনেক কম খরচে রোগীদের চিকিৎসাসেবা দেওয়া যাবে।’
হাসপাতালের রেডিওথেরাপি বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, রেডিওথেরাপি দিতে একজন রোগীর খরচ পড়বে মাত্র ৯০টাকা। প্রতিদিন ৯০ থেকে ১০০ জন ক্যানসার রোগীকে চিকিৎসাসেবা প্রদান করা সম্ভব হবে।
ক্যান্সার আক্রানত্ম অধিকাংশ রোগীকেই কোনো না কোনো পর্যায়ে রেডিওথেরাপি (তেজস্ক্রিয় বিকিরণ) নিতে হয়। বৃহত্তর চট্টগ্রামে রেডিওথেরাপি সেবা আছে কেবল চমেক হাসপাতালে। কিন’ তিন বছর আগে ২০১৫ সালের ১ সেপ্টেম্বর চমেক হাসপাতালের রেডিওথেরাপি মেশিনটি নষ্ট হয়ে যায়। চট্টগ্রামে সরকারি-বেসরকারি পর্যায়ে আর কোনো হাসপাতালে ব্যয়বহুল এই মেশিন নেই।