কর্মকর্তাদের কর্মবিরতি পালন

চট্টগ্রাম কাস্টমস হাউজ চার ঘণ্টা অচল

নিজস্ব প্রতিবেদক

কাস্টমস কর্মকর্তাদের কর্মবিরতির জন্য গতকাল চট্টগ্রাম কাস্টমস হাউজের সকল কার্যক্রম চার ঘণ্টার জন্য অচল ছিল। সম্প্রতি সিলেটের তামাবিল শুল্ক স্টেশনে বিজিবি সদস্যরা কাস্টমস সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা ও তাদের সহকর্মীদের ওপর হামলার প্রতিবাদে চট্টগ্রাম-সিলেট ও কুমিল্লা অঞ্চলের কাস্টমস এক্সাইজ ও ভ্যাট বিভাগের কর্মকর্তাদের সংগঠন চকাএভ’র উদ্যোগে চট্টগ্রাম কাস্টমস হাউজসহ সকল কমিশনারেটে এ কর্মসূচি পালন করা হয়। সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত শুল্কায়ন বন্ধ থাকার পর বিভিন্ন গ্রুপে কার্যক্রম শুরু হলে ব্যাপক ভিড় দেখা গেছে। এ সময় শুল্কায়ন কাজ করতে গিয়ে কাস্টমস কর্মকর্তা-কর্মচারী ও সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট প্রতিনিধিদের ভোগান্তি পোহাতে হয়েছে। পণ্য ডেলিভারীতে একই সমস্যা পোহাতে হয়। বিসিএস কাস্টমস ক্যাডার কর্মকর্তা এবং কর্মচারীরাও একাত্মতা ঘোষনা করে তাদের সাথে কর্মসূচিতে যোগ দেন। এ উপলক্ষে সকাল ১১টায় কাস্টমস হাউজ চত্বরে সংগঠন সভাপতি মো. আমজাদ হোসেন হাজারীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মোর্শেদ শামীমের পরিচালনায় সমাবেশে চট্টগ্রাম কাস্টমস হাউজ কমিশনার কমিশনার ড. এ কে এম নুরুজ্জামান, অতিরিক্ত কমিশনার ফাইজুর রহমান ও মো.জিয়াউদ্দিন, যুগ্ম কমিশনার নাহিদ নওশাদ মুকুল, সংগঠনের কেন্দ্রীয় নেতা মোশারফ হোসেন ভূইয়া, সাইফুল ইসলাম, চকাএভ নেতা মুশফিকুর রহমান যোশেফ, ইন্দ্রজিৎ মুখার্জী ও জাহাঙ্গীর চৌধুরী প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠানে বক্তারা এ ন্যাক্কারজনক হামলার নিন্দা জানিয়ে এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস’া নেয়ার দাবি জানান। এদিকে কাস্টমস কমিশনার বলেন ‘আমরা সবাই রাজস্ব সৈনিক, একজনের ওপর হামলার অর্থ সকলের প্রতি আঘাত’।