গ্রাম আদালতকে সক্রিয় করলে মামলা দ্রুত নিষ্পত্তি হবে

বিজ্ঞপ্তি

চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেন বলেছেন, বিভিন্ন কারণে ও নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে নিষ্পত্তি না হওয়ায় নিম্ন আদালত থেকে শুরম্ন করে উচ্চ আদালতে ক্রিমিনাল ও সিভিলসহ পর্যনত্ম অসংখ্য মামলার জট লেগে আছে। গ্রাম আদালতে ছোট-খাটো অভিযোগের বিষয়গুলো দ্রম্নত সমাধান করতে পারলে মামলার বাদি-বিবাদিগণকে আর আদালতের শরণাপন্ন হতে হবেনা। গ্রাম আদালতগুলোকে আরো সক্রিয় করতে পারলে মামলা দ্রম্নত নিষ্পত্তি করা সম্ভব হবে। এজন্য ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানদের আনত্মরিক হয়ে সম্পূর্ণ নিরপেড়্গভাবে কাজ করতে হবে।  ইউপি চেয়ারম্যান ব্যতীত অন্য কোনো জনপ্রতিনিধির আদালতের বিচারিক ড়্গমতা নেই। এটা বড় সম্মানের বিষয়। ইউপি চেয়ারম্যানগণ যখন আদালতে বসেন তখন তাদের সম্পূর্ণ নিরপেড়্গ হতে হবে এবং আত্মীয়-স্বজন ভেবে পড়্গপাত না করলে জনগণের ন্যায়-বিচার প্রতিষ্ঠিত হবে। শানিত্ম ও সুশাসন প্রতিষ্ঠায় গ্রাম আদালতকে শক্তিশালী করতে হলে বিচারকার্যকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিতে হবে। জনপ্রতিনিধিরা সৎ ও নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করতে হবে। এতে করে স’ানীয় সরকার ব্যবস’া বাসত্মবায়ন হবে। গতকাল মঙ্গলবার সকাল ১০টায় চট্টগ্রাম সার্কিট হাউসে অনুষ্ঠিত ‘জেলা পর্যায়ে গ্রাম আদালত কার্যক্রমের অগ্রগতি পর্যালোচনা করণীয়’ বিষষক বার্ষিক সমন্বয় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে  তিনি এসব কথা বলেন। জেলা প্রশাসন ও স’ানীয় সরকার বিভাগের বাংলাদেশ গ্রাম আদালত সক্রিয়করণ (২য় পর্যায়) প্রকল্প সমন্বয় সভার আয়োজন করেন। জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের উপ-পরিচালক (স’ানীয় সরকার) ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজির সভাপতিত্বে ও ইউএনডিপি’র ডিস্ট্রিক্ট ফ্যাসিলিটেটর উজ্জ্বল কুমার দাস চৌধুরীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম জেলার অতিরিক্ত পলিশ সুপার (দড়্গিণ) আফরাজুল হক টুটুল ও বাংলাদেশ গ্রাম আদালত সক্রিয়করণ (২য় পর্যায়) প্রকল্পের প্রোগ্রাম স্পেশালিস্ট কামরম্নল হাসান। আলোচনায় অংশ নেন সন্দ্বীপ উপজেলা চেয়ারম্যান মো. শাহজাহান, সাতকানিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান এম.এ মোতালেব, ফটিকছড়ি উপজেলা নির্বাহী অফিসার সায়েদুল আরেফিন, সীতাকুন্ড উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিল্টন রায়, মহিলা বিষয়ক উপ-পরিচালক অঞ্জনা ভট্টাচার্য্য, সমাজসেবা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মোহাম্মদ শহীদুল ইসলাম, যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক সালেহ আহমদ চৌধুরী, সমাজকর্মী জেসমিন সুলতানা পারম্ন প্রমুখ। সভায় জেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, এনজিও প্রতিনিধিরা অংশ নেন।