গ্যাব্রিয়েলা মিস্ত্রালের কবিতা

ভাষান্তর : মাইনুল ইসলাম মানিক

গ্যাব্রিয়েলা মিস্ত্রালের কবিতা
ভাষান্তর : মাইনুল ইসলাম মানিক
গোধূলি

টের পাচ্ছি, কোমল হৃদয়
গলে যাচ্ছে মোমের মতো
শোণিত শিরায় প্রবাহিত যেনো
মদ নয়, মন’র তেলের ধারা।
টের পাচ্ছি, শান্ত অচঞ্চল হরিণীর মতো
পালিয়ে যাচ্ছে জীবন।
সহোদরা

আজ লাঙলের ফলায় ভূমিকর্ষণরত এক রমনীকে দেখলাম
তার ছিলো প্রণয়গ্রাহী চওড়া নিতম্ব, আমার মতোন
আর সে ঝুঁকে ঝুঁকে একমনে ক্রিয়ারত ছিলো।

সযত্নে আমি তার কোমরে হাত রাখি; তাকে নিয়ে আসি বাড়ি।
সে আমার নিজস্ব গ্লাস হতে দুগ্ধপান করে, পোহায় ভালোবাসার
ছোঁয়ায় বাড়ন্ত ফলবর্তী কুঞ্জবনের ছায়া। আর আমার স্তন যদি
অনুর্বর হয়ে ওঠে; আমার সন্তান ঠোঁট রাখবে তার দুধালো স্তনে।

অপ্রসন্ন জননী

ঘুমোও, হে প্রিয়, ঘুমিয়ে থাকো
শঙ্কাহীন; কোনো ডরভয় নেই
যদিও আমার আত্মা থেকে যাবে নির্ঘুম
যদিও আমি নেবো না’কো বিশ্রাম।

ঘুমোও, ঘুমিয়ে থাকো, আর রাত্রিকালে
একটি ঘাসের কোমল পাতা
একটি ভেড়ার মসৃণ লোমের চেয়েও সুকোমল হোক তোমার নিশ্বাস।

আমার মাংসমজ্জা মিশে যাক তোমার শরীরে
থেমে যাক উদ্বেগ, বুকের কম্পন
তোমাতেই মুদে যাক আমার চক্ষুদ্বয়
আমার হৃদয়; সেও ঘুমিয়ে যাক তোমার ভিতর।