‘গণসঙ্গীত জগতের পুরোধা শিল্পী অশোক সেনগুপ্ত’

বিজ্ঞপ্তি

গণসঙ্গীত জগতের অন্যতম পুরোধা ব্যক্তিত্ব অশোক সেনগুপ্ত কলকাতার টাটা মেডিক্যাল সেন্টারে চিকিৎসারত অবস’ায় ৫ ডিসেম্বর বাংলাদেশ সময় ভোর ৬টা ১৫ মিনিটে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন।
আজ শুক্রবার সকাল ১০টায় তার মরদেহ রাখা হবে চট্টগ্রাম শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে যেখানে সর্বসত্মরের মানুষ তাকে শেষবারের মত শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করবে। এরপর অভয়মিত্র মহা শ্মশানে তার শেষকৃত্য অনুষ্ঠিত হবে।
অশোক সেনগুপ্তের জন্ম বোয়ালখালীর খিতাপচর গ্রামে ১৯৪৯ সালে। মা মৃণালিনা সেনগুপ্তা ও পিতা যতীন্দ্রলাল সেনগুপ্ত। ১৩ বছর বয়সে সঙ্গীত জীবনের শুরম্ন থেকে ৬৯ এর উত্তপ্ত রাজপথে থেকে স্বাধীন বাংলাদেশে স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলন, গ্রামে-গঞ্জে গণসংগীত নিয়ে সাহসী ভূমিকা রাখেন অশোক সেনগুপ্ত। আওয়ামী শিল্পী গোষ্ঠীর দায়িত্ব কাঁধে নিয়ে গণজাগরণের গান গেয়ে বহুবার মুখোমুখি হয়েছেন জীবন সংশয়েরও। বেতারে আধুনিক গানে এবং বিটিভিতে নজরম্নল সংগীতে প্রথম শ্রেণির শিল্পী হিসেবে তালিকাভুক্ত ছিলেন তিনি এবং বেতারে ২০ বছরেরও অধিক সময় ধরে সঙ্গীত পরিচালক হিসেবে অনত্মর্ভুক্ত ছিলেন অশোক সেনগুপ্ত। শিড়্গক হিসেবে অসংখ্য ছাত্রছাত্রীদের ভেতর ছড়িয়ে দিয়েছেন গণসংগীতের দৃপ্ত শিখাটুকু।
অশোক সেনগুপ্ত এ পর্যনত্ম ৪০০ এরও অধিক গণসংগীত রচনা করেছেন। দিয়েছেন সুর, গেয়েছেনও। নিজের লেখা প্রায় শতাধিক আধুনিক ও ধর্মীয় গানের স্রষ্টা তিনি। এছাড়া রচনা ও পরিবেশনা করেছেন গীতি আলেস্নখ্য বিড়্গুব্ধ বাংলা, দিন বদলের পালা, সর্বনাশী রাঙ্গাবলী। সুরারোপ করেছেন সুকানত্ম ভট্টাচার্যের ‘অভিযান’ নৃত্যনাট্যের। তার উলেস্নখযোগ্য গানগুলোর মধ্যে রয়েছে ‘যেখানে পাখির গানে সকাল আসে, রাঙ্গা সূর্য হাসে সবুজ ঘাসে, আমি যেন বারবার জন্ম লভি সেই দেশে, আমার বাংলাদেশে, জেগে ওঠো বাংলা ৭১ এর চেতনায়, এবার অস্ত্র নয় জনযুদ্ধে আনবো বিজয়, দুর্বার একতায়, জেগে ওঠো বাংলা, জেগে ওঠো, তোরা যুদ্ধ অপরাধী, তোরা মানবতা বিরোধী, তোদের হবেনা দেশে ঠাঁই, তাইতো জেগেছে বিপস্নবী জনতা, তোদের বিচার চাই, বাংলা মাগো সবুজ ঘাসের চাদর দিও জাতির পিতার গায়, পরম সুখে ঘুমিয়ে থাকুক টুঙ্গিপাড়ায়সহ অসংখ্য গণমানুষের গান। ব্যক্তিগত জীবনে সহধর্মিণী হিসেবে পেয়েছিলেন চট্টগ্রামের সম্ভ্রানত্ম পরিবার কবিরাজ কবিরত্ন শ্যামাচরণ কবিরাজ মহাজনের নাতনী নৃত্যশিল্পী রত্না সেনগুপ্তাকে। দুই সনত্মান কত্থক নৃত্যশিল্পী তিলোত্তমা সেনগুপ্তা এবং অভিনয় ও আবৃত্তি শিল্পী ইমন সেনগুপ্ত (প্রয়াত)। জামাতা নাট্যজন অসীম দাশ।