কেএসআরএমের মালিককে আসামি করে মামলা

নিজস্ব প্রতিনিধি, সাতকানিয়া

সাতকানিয়ায় ইফতার সামগ্রী নিতে এসে পদদলিত হয়ে ১০ দুস’ নারী নিহতের ঘটনায় নিহত হাছিনা বেগমের স্বামী মোহাম্মদ ইসলাম বাদি হয়ে কেএসআরএম এর মালিক মোহাম্মদ শাহজাহানকে আসামি করে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। গতকাল সকাল সাড়ে ১০টায় সাতকানিয়া থানায় এ মামলা দায়ের করা হয়।
সাতকানিয়া থানা অফিসার ইনচার্জ মো. রফিকুল হোসেন মামলা দায়েরের বিষয়টি সুপ্রভাতকে নিশ্চিত করেন। মোহাম্মদ ইসলামের দায়ের করা মামলায় কেএসআরএম এর ব্যবস’াপনা পরিচালক (এমডি) হাজী মোহাম্মদ শাহজাহান ছাড়াও অজ্ঞাতনামা কয়েকজনকে আসামি করা হয়।
অফিসার ইনচার্জ রফিকুল হোসেন বলেন, ৩০৪ (ক) ধারার ৩৪ পেনাল কোডে এ মামলা দায়ের হয়।
এদিকে ইফতার ও জাকাত সামগ্রী বিতরণে অব্যস’াপনা ও কর্তব্যকাজে অবহেলার অপরাধে ইস্পাত কোম্পানির ৪ কর্মচারীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গতকাল মঙ্গলবার বিকাল ৫টায় পূর্ব গাটিয়াডাঙ্গা এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলেন ছিদ্দিক আহম্মদ ছেলে মুরিদুল আলম প্রকাশ মুরাদ (২৭), জাকির হোসেনের ছেলে মোহাম্মদ ইদ্রিছ (২৬), আমিলাইষ গুনাপাড়া সোলায়মানের ঁ ২য় পৃষ্ঠার ১ম কলাম
ছেলে হাবিব আহমদ সাহেদ (৩২) ও মো. ইদ্রিচের ছেলে আজগর আলী (২৮)। গ্রেফতারকৃতরা জাকাত-ইফতার সামগ্রী বিতরণকালে সেখানে উপসি’ত থেকে মাঠে দায়িত্বে থাকলেও কর্তব্যকাজে অবহেলা করেছেন বলে প্রাথমিক তদনেত্ম জানা গেছে।
বাদি মো. ইসলাম এজাহারে উলেস্নখ করেন, কেএসআরএম এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর মোহাম্মদ শাহজাহান এবং তার বিভিন্ন পদের অজ্ঞাতনামা কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দের ইচ্ছাকৃত অবহেলা, অব্যবস’াপনা এবং তাচ্ছিল্যপূর্ণ আয়োজনের কারণেই সোমবার সকাল সাড়ে ৮টা হতে ১০ টা পর্যনত্ম বিভিন্ন সময়ে উক্ত মাঠে ঠাসাঠাসি, প্রচ- গরম অবস’ার মধ্যে সেখানে ঠেলা-ধাক্কার ঘটনা ঘটে। এতে তার স্ত্রী হাসিনা আক্তারসহ অন্যরা মারা যান।
এদিকে ইফতার সামগ্রী বিতরণকালে অব্যবস’াপনার কারণে পদদলিত হয়ে নিহতদেরপরিবারে চলছে শোকের মাতম। এ ঘটনায় সাতকানিয়া- লোহাগাড়ায় নেমে এসেছে শোকের ছায়া। মঙ্গলবার দুপুরে নিহত রিনা আক্তারের বাড়ি দড়্গিণ ঢেমশায় গেলে দেখা যায়, তার স্বামী হাসান ড্রাইভার স্ত্রীর মৃত্যুতে কান্না করছেন। এসময় তিনি বলেন, আমার ছেলে মেয়েরা মা ডাকবে কাকে?
রিনার ছোট ভাই নুরম্নন্নবী বলেন, বড় আপার সংসারে অভাব ছিল। তার স্বামী গাড়ি চালালেও বর্ষায় বেকার হয়ে পড়ে। এতে অনেক সময় না খেয়ে তিনি ছেলে মেয়েদের নিয়ে দিন কাটাতেন। ইস্পাত কোম্পানি তার নিজ বাড়িতে গরিবদের সাহায্য দেয়ার খবর পেয়ে সোমবার সকালে আপা সেখানে গিয়ে ইফতার সামগ্রী এনে স্বামীর অভাবের বোঝাকে হালকা করতে চেয়েছিলেন। এখন বোঝা আরো ভারি হয়ে গেল। তিনি মালিকের পড়্গ থেকে ড়্গতিপূরণের আশ্বাস পাওয়ার কথা স্বীকার করেন। রিনা আক্তারের ২ ছেলে ১ মেয়ে রয়েছে। ওই দিন রাতেই নামাজে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস’ানে তার লাশ দাফন করা হয়েছে। খবর নিয়ে জানা যায়, পদদলিত হয়ে নিহত আরো ৯ মহিলার লাশ ওই রাতে নামাজে জানাজা শেষে দাফন সম্পন্ন হয়েছে।
উলেস্নখ্য, প্রতি বছর সাতকানিয়া উপজেলার নলুয়া ইউনিয়নের পূর্ব গাটিয়াডেঙ্গা হাঙ্গারমুখ এলাকার কেএসআরএম গ্রম্নপের মালিক শাহজাহান এলাকার দুসত্মদের মাঝে চাল, শাড়ি, এক হাজার টাকাসহ ইফতার সামগ্রী বিতরণ করে থাকেন। আসন্ন রমজান উপলড়্গে গত ১৪ মে সকালে এলাকায় ইফতার সামগ্রী বিতরণের দিন ধার্য্য ছিল। কাদেরিয়া মঈনুল উলুম দাখিল মাদ্রাসার মাঠে আগের দিন থেকে দূরদূরানত্ম থেকে এসে মহিলারা জমায়াত হতে থাকেন। সকাল ১০ টায় ইফতার সামগ্রী বিতরণ শুরম্ন করা হলে এক সাথে ৩০-৩৫ হাজার মহিলা হুড়োহুড়ি করে মাঠে প্রবেশ করতে গিয়ে পদদলিত হয়ে ১০ জন নিহত হন। এছাড়া অর্ধশতাধিক মহিলা আহত হন বলে স’ানীয় সূত্রে জানা যায়। খবর পেয়ে সাতকানিয়া থানা পুলিশ ঘটনাস’লে গিয়ে পরিসি’তি নিয়ন্ত্রণে আনে।
সংশোধনী
‘৩ কেজি চাল, ২ কেজি ছোলা, ১টা শাড়ি আর দশটা লাশ’ শীর্ষক সাতকানিয়া ট্র্যাজেডি নিয়ে করা গতকাল প্রকাশিত সুপ্রভাতের প্রতিবেদনে ভুলবশত কেএসআরএম গ্রম্নপের স্বত্বাধিকারী আলহাজ শাহজানকে ‘সাবেক সাংসদ’ উলেস্নখ করা হয়েছে।