সবজিখেতে দুর্বৃত্তের তাণ্ডব

কৃষককে পিটিয়ে হাত-পা বেঁধে খামারে আটকা

নিজস্ব প্রতিনিধি, চকরিয়া

চকরিয়ায় এক দরিদ্র কৃষকের ৪০ শতক জমির সবজিখেতে দুর্বৃত্তরা তাণ্ডব চালিয়ে ব্যাপক ক্ষতিসাধন করেছে। এ সময় দুর্বৃত্তরা খেতের মালিককে হাত-পা বেঁধে বেধড়ক পিটিয়ে জখম করেছে। তারা খেতের ফুলকপি ও মরিচ গাছ কেটে প্রায় দেড় লাখ টাকার ক্ষতিসাধন করেছে। গতকাল ভোররাতে উপজেলার পূর্ববড় ভেওলা ইউনিয়নের মাতামুহুরী নদীর তীরবর্তী নোয়াচর এলাকায় ঘটেছে এ ঘটনা।
ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক আবুল হোসেন ওই ইউনিয়নের সেকান্দর পাড়া এলাকার মৃত এলাহাদাদের ছেলে। ঘটনাটি জানতে পেরে গতকাল সকালে স’ানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা ঘটনাস’ল পরিদর্শন করেন।
অভিযোগে কৃষক আবুল হোসেন জানান, বাড়ির অদূরে মাতামুহুরী নদীর তীরবর্তী নোয়াচর এলাকার জমিতে প্রায় ৪০ শতক জমি বর্গা নিয়ে তিনি চলতি মৌসুমে শীতকালীন সবজি চাষাবাদ করেন। চাষের আগে বিভিন্ন এনজিও থেকে ঋণ নিয়ে ওই জমিতে ফুলকপি, মরিচ, ধনিয়াপাতাসহ নানাজাতের ফলন চাষ করেন। কঠোর পরিশ্রমের ফলে জমিতে ব্যাপক সবজি ফলনও হয়। ভুক্তভোগী কৃষক জানান, প্রতিদিনের মতো গতকাল রাতেও সবজিখেত পাহারা দেন তিনি। খামারঘরে ঘুমিয়ে থাকাবস’ায় এদিন ভোররাতে খেতভরা ফুলকপি ও মরিচখেতে ৮-৯ জনের একদল দুর্বৃত্ত আকস্মিক হানা দিয়ে তাণ্ডব শুরু করে। এ সময় ঘুম থেকে জেগে ওঠে কৃষক আবুল হোসেন দুর্বৃত্তদের বাধা দেয়ার চেষ্টা করেন। কিন’ হামলাকারীরা ধারালো অস্ত্রের মুখে তাকে জিম্মি করে হাত-পা বেঁধে বেধড়ক পিটিয়ে খামারঘরে ফেলে রাখে।
কৃষক আবুল হোসেন দাবি করেন, ঘটনার সময় দুর্বৃত্তরা খেতের ফুলকপি ও মরিচ গাছ কেটে বিপুল পরিমাণ সবজি লুটে নিয়ে যায় এবং ব্যাপক ক্ষতিসাধন করে। ঘটনার খবর পেয়ে গতকাল সকালে স’ানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ারুল আরিফ দুলাল ও উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা মামুনুর রশিদ ঘটনাস’ল পরিদর্শন করেন।
আক্রান্ত কৃষক আবুল হোসেন অভিযোগ করেছেন, চকরিয়া পৌরসভার আমান্যাচর এলাকার আকবর আহমদের ছেলে নাজেম উদ্দিন মনু, নাছির উদ্দিনসহ ৮-৯ জনের একদল দুর্বৃত্ত ফসল খেতে ঢুকে তাণ্ডবের ঘটিয়েছে। তবে কি কারণে তারা আমার খেতে ঢুকে ঘটনাটি করেছে তা আমার বোধগম্য হচ্ছে না। কারো সাথে আমার জায়গা-জমি বা কোনো ধরনের বিরোধ নেই। ঘটনার বিষয়ে তিনি মামলার প্রস’তি নিচ্ছেন বলে জানান কৃষক আবুল হোসেন।
ইউনিয়নের দায়িত্বরত উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা মামুনুর রশিদ জানান, পরিদর্শনে দেখতে পাই, দুর্বৃত্তরা কৃষকের প্রায় ৪০ শতক জমির খেতের সবজি নষ্ট করে দিয়েছে। বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত কৃষককে উপজেলা কৃষি সমপ্রসারণ অধিদপ্তরে লিখিত অভিযোগ করার জন্য বলা হয়েছে।
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন স’ানীয় পূর্ববড় ভেওলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ারুল আরিফ দুলাল। তিনি বলেন, ইউনিয়নের আওতাধীন মাতামুহুরী নদীর তীরবর্তী নোয়াচর এলাকায় দরিদ্র কৃষকের সবজিখেতে তাণ্ডব চালিয়ে দুর্বৃত্তরা ব্যাপক ক্ষতিসাধন করেছে। এ ধরনের ঘটনা কৃষককে হত্যার শামিল। জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস’া গ্রহণে প্রশাসনের কাছে আবেদন জানাচ্ছি।