কারাগারে ৩ বিএনপির ৩৮ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা চকরিয়ায়

নিজস্ব প্রতিনিধি, চকরিয়া

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মামলার রায় ঘিরে নাশকতা চেষ্টার অভিযোগে চকরিয়ায় বিএনপির অন্তত ৩৮জন নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা রুজু হয়েছে। ইতোমধ্যে পুলিশ ওই মামলার এজাহারনামীয় তিন আসামিকে গ্রেফতারপূর্বক কারাগারে পাঠিয়েছে। গত ৬ ফেব্রুয়ারি থানার এসআই গাজী মাঈন উদ্দিন বাদি হয়ে মামলাটি রুজু করেন। মামলার এজাহারে ১৩ জনের নাম উল্লেখ ও আরো ২০-২৫ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামি করা হয়।
আসামিরা হলেন উপজেলার কৈয়ারবিল ইউনিয়নের ইসলামনগর এলাকার নুরুল আমিনের ছেলে মহিউদ্দিন সৈকত, ফাসিয়াখালী ইউনিয়নের হাজিয়ান এলাকার আহমুদুর রহমানের ছেলে আবদুল মোমেন, কামাল উদ্দিনের ছেলে হেফাজ উদ্দিন, পৌরসভার থানা রাস্তার মাথা এলাকার মৃত সুলতান আহমদের ছেলে জয়নাল আবেদিন, পৌরসভার ফুলতলা এলাকার মৃত আবদুল গনির ছেলে আবদুল হামিদ, ঘনশ্যামবাজার এলাকার আবদুল নবীর ছেলে এমরান সালেহ, পৌরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ডের দক্ষিণ লক্ষ্যারচর তরছঘাট এলাকার নুরুল হকের ছেলে শাহজাহান মনির, কাকারা পুলেরছড়া এলাকার ভুতাইয়ার ছেলে মিনহাজ, লক্ষ্যারচর ইউনিয়নের মাসুদ আহমদের ছেলে কফিল মৌলভী, খুটাখালী ইউনিয়নের খোবাইব আজম, মো. আনিছ, লক্ষ্যারচর ইউনিয়নের খন্দকার পাড়ার আকবর আহমদের ছেলে আসহাব উদ্দিন। তাদের মধ্যে প্রথম তিনজনকে পুলিশ ঘটনার দিন ৬ ফেব্রুয়ারি চিরিঙ্গা জনতা মার্কেট থেকে গ্রেফতার করে।
মামলার বাদি চকরিয়া থানার এসআই গাজী মাঈন উদ্দিন দাবি করেন, খালেদা জিয়ার মামলার রায়কে ঘিরে নাশকতার উদ্দেশ্যে ঘটনার দিন এজাহারনামীয় ও পলাতক দেখানো বিএনপির নেতাকর্মীরা চিরিঙ্গা জনতা মার্কেট পয়েন্টে জড়ো হয়। ওই সময় তারা কয়েকটি গাড়িতে হামলা করে। ঘটনার পর পুলিশ ঘটনাস’লে অভিযান চালিয়ে গাড়ির ভাঙচুর করা কিছু কাচের টুকরো উদ্ধার করে। ওই সময় ঘটনাস’ল থেকে তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়।