বইমেলার মঞ্চে আলোচনা

কবি নজরুল ছিলেন বাঙালির চেতনার বহ্নিশিখা

নিজস্ব প্রতিবেদক গ্ধ

দর্শনার্থীর ভিড়ের সাথে বাড়ছে নতুন বইয়ের সংখ্যাও। এম এ আজিজ স্টেডিয়ামে অমর একুশে বইমেলায় প্রতিদিন নতুন নতুন গন্ধমাখা বই আসছে। প্রতিটি স্টলে পাঠকের বেশ ভিড়। চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন আয়োজিত বইমেলার গতকাল ছিল তৃতীয় দিন। ওইদিন মেলায় ছিল নজরুল উৎসব এবং আলোচনা সভা।
আলোচনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য ড. মোহীত উল আলম। সরকারি কমার্স কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মো. আইয়ুব ভূইয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় কলা ও মানববিদ্যা অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. সেকান্দর চৌধুরী।
আলোচকরা বলেন, নজরুলকে শুধু বিদ্রোহী কিংবা শুধু অসামপ্রদায়িক বলে চিত্রিত করলে হবে না। তিনি স্বজাতির প্রতি যে দায়িত্ব পালন করে গেছেন, তাও গুরুত্বের সঙ্গে আলোচনায় আনতে হবে। কেননা কবি নজরুল ছিলেন বাঙালি চেতনার বহ্নিশিখা। তিনি অন্যায় এবং শৃঙ্খলের বিরুদ্ধে আপোষহীন সংগ্রাম করেছেন তাঁর কবিতা এবং গানের মধ্য দিয়ে। আলোচনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বইমেলা কমিটির যুগ্ম আহবায়ক মহিউদ্দীন শাহ আলম নিপু।
এদিকে গতকাল মেলায় বলাকা প্রকাশনা থেকে প্রকাশিত দুটি বইয়ের মোড়ক উম্মোচন করা হয়। একটি লেখিকা মিনহাজুন্নিছার ‘ছোট্ট মনির সারাবেলা’ অন্যটি রেজা কাইছারের ‘লুকিং থিংস এরাউন্ড সু প্রুফান্ড’।
এদিকে মঞ্চে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে নজরুল সংগীত পরিবেশন করে নজরুল সংগীতশিল্পী সংস’া। দলীয় নৃত্য পরিবেশন করে চারুতা নৃত্যকলা একাডেমি। একক সঙ্গীত পরিবেশন করেন দীপেন চৌধুরী, অপু বর্মন, জয়ন্তী লালা, মন্দিরা চৌধুরী। একক আবৃত্তিতে অংশ নেন কংকন দাশ, হাসান জাহাঙ্গীর, তৈয়বা আমিত, ফারুক তাহের, মুজাহিদুল ইসলাম, এহতেসামুল হক। অনুষ্ঠানটি উপস’াপনা ছিলেন গৌতম চৌধুরী
আজকের অনুষ্ঠান
আজ বইমেলার চতুর্থ দিনে আছে
বসন্তবরণ। অনুষ্ঠানের উদ্বোধক হিসেবে উপসি’ত থাকবেন দৈনিক সুপ্রভাত বাংলাদেশের সম্পাদক রুশো মাহমুদ। বিশেষ অতিথি থাকবেন সংগীতশিল্পী তপন চৌধুরী। সন্ধ্যায় রয়েছে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। নতুন বইয়ের ভিড়ে মেলায় আজ থেকে পাওয়া যাবে বাতিঘর প্রকাশিত কথাসাহিত্যিক বিশ্বজিৎ চৌধুরীর ‘নির্বাচিত গল্প’। এদিকে গতকাল থেকে মেলায় পাওয়া যাচ্ছে কবি হাফিজ রশিদ খানের ‘শ্রেষ্ঠ কবিতা’ সংকলন। মেলার বেহুলা বাংলা স্টলে বইটি পাওয়া যাচ্ছে। বিকেলে কবি হাফিজ রশিদ খান বহুলা বাংলা স্টল, কথাসাহিত্যিক বিশ্বজিৎ চৌধুরী বাতিঘর স্টলে উপসি’ত থেকে পাঠকের সাথে আড্ডা দেবেন বলে জানা গেছে।