কবি মারুফুল ইসলামের ‘কবিতা সংগ্রহ’ বইয়ের আলোচনায় ড. আনিসুজ্জামান

কবিতায় ফুটে উঠেছে সমালোচক সত্তা

নিজস্ব প্রতিবেদক
বাতিঘরে কবি মারুফুল ইসলামের ‘কবিতা সংগ্রহ’ বইয়ের ওপর আলোচনা করছেন প্রফেসর এমিরেটাস ড. আনিসুজ্জামান-সুপ্রভাত

কবি মারুফুল ইসলামের কবিতার বই ‘কবিতা সংগ্রহ’ এর আলোচনা অনুষ্ঠান নগরীর প্রেস ক্লাব ভবনের বাতিঘরে অনুষ্ঠিত হয়েছে গতকাল শনিবার সন্ধ্যায়।
অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্য রাখেন বরেণ্য বুদ্ধিজীবী প্রফেসর এমিরেটাস ড. আনিসুজ্জামান। আলোচনায় অংশ নেন- কবি আবুল মোমেন, প্রাবন্ধিক অধ্যাপক সৈয়দ মঞ্জুরুল ইসলাম, অধ্যাপক গোলাম মুস্তাফা এবং কবি বিশ্বজিৎ চৌধুরী।
ড. আনিসুজ্জামান তার বক্তব্যে বলেন, ‘মারুফ কবিতা লিখলেও তার মধ্যে সমালোচক সত্তা আছে। সে তার কবিতাগুলোকে সেই সত্তায় বিচার করে। কবিতাগুলোর মধ্যে অনেকগুলো বিষয় সে তুলে ধরেছে আর প্রত্যেকটি বিষয়েরই বিভিন্ন দিক রয়েছে।’
‘অসামর্থ্য ও অর্জন দুটি বিপরীত দিক তার কবিতায় অসাধারণভাবে উঠে এসেছে। কবির নিজস্ব জগৎ ও তার চিন্তা অত্যন্ত সুন্দরভাবে প্রকাশ পেয়েছে কবিতায়’, যোগ করেন তিনি।
তিনি আশা করেন কবিতাগুলো দেশের সীমানা ছাড়িয়ে সমকালীন বিদেশি কবিদের কাতারে নিয়ে যাবে কবিকে।
কবি আবুল মোমেন বলেন, ‘কবিতা কখনো কষাঘাতের মতো আমাদের পিঠের ওপর পড়ে, কখনো শিহরণের মতো আমাদের অনুভূতি হয় কখনোবা বিষ্ময়, বেদনায় আমরা আক্রান্ত হই। মারুফের কবিতায় আমরা সেভাবেই আক্রান্ত হয়েছি।’
বইয়ের লেখক কবি মারুফুল ইসলাম বলেন, ‘আমি সবসময় চেয়েছি লোকচক্ষুর অন্তরালে থাকতে। প্রকৃতিও আমার সাথে বৈরী আচরণ করে। ফলে আমি অনেক কিছু থেকে অদৃশ্য হয়ে পড়ি।’
কবি বলেন, ‘গত ৩৫ বছর ধরে কবিতা লিখছি। কারণ, কবিতা সহজে লেখা যায় যা প্রবন্ধ লেখার মতো কঠিন নয়।’ নিজেকে অলস দাবি করে কবি পাঠকদের আলসেমী না করে কবিতা পড়ার আহ্বান জানান।
বইটি ইংরেজিতে অনুবাদ করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের অধ্যাপক সৈয়দ মঞ্জুরুল ইসলাম।

আপনার মন্তব্য লিখুন