নতুন কথায় নতুন স্বরে

কথাসাহিত্যের কাগজ ‘কথাস্বর’

বিটুল দেব

লিটলম্যাগ সম্পাদনা আর নিজের খেয়ে বনের মোষ তাড়ানো একই কথা। সম্পাদক রাজীব রাহুল প্রথম বাক্যে বলে দিয়েছেন লিটলম্যাগ সম্পাদনা সম্পর্কে মহা মূল্যবান উক্তি। লিটলম্যাগ সম্পর্কে বুদ্ধদেব বসুর সংজ্ঞা সূচক উদ্ধৃতিটি হচ্ছে- কৃতিত্ব যেটুকু হোক, অন্ততপক্ষে নজর যাদের উঁচুর দিকে। চিন্তা চেতনা যাদের বড় তারাই পারে লিটলম্যাগ করতে। তার মধ্যে বিজ্ঞাপন বিহীন হলে তো কোন কথাই নেই। লিটল ম্যাগাজিন সম্পাদনা করা খুবই কষ্টের কাজ ও সাহসী উদ্যোগ।
চট্টগ্রামে কথাসাহিত্যিক কামরুজ্জামান জাহাঙ্গীরের অকাল মৃত্যুর পর থেমে যায় তাঁর সম্পাদিত কথাসাহিত্যের ম্যাগ ‘কথা’র পথচলা। এরপর কেউ হাল ধরেনি কথাসাহিত্যের ম্যাগ বাঁচিয়ে রাখতে। দীর্ঘদিন বিরতির অবসান ঘটিয়ে অনেকটা সাহস করে এ পথে চলেছেন গল্পকার ও প্রাবন্ধিক রাজীব রাহুল। সম্পাদিত ম্যাগাজিনের নাম রেখেছেন “কথাস্বর”। সূচনা সংখ্যা শুরু করেছেন ছোটগল্প সংখ্যা দিয়ে। স্বতন্ত্রধারায় এটি উচ্চমানের সংকলন।
কথাস্বর ম্যাগটি হাতে নিয়ে সূচিতে চোখ রাখলেই বুঝা যাবে। সব লেখকের অসাধারণ লেখাগুচ্ছ। বর্তমানে পরিচিত এবং শক্তিমান লেখকরাই সংখ্যাটিতে স্থান পেয়েছেন। প্রবীণদের পাশা-পাশি উদ্দীয়মান নবীন লেখকরাও। ইমদাদুল হক মিলন, জাকির তালুকদার, রফিকুর রশিদ, মনি হায়দার, মহীবুল আজীজ, খালেদ হামেদী, পিয়াস মজিদ, বীরেন মুখার্জী, শোয়েব মাহমুদ, জাহেদ মোতালেব, ফজলুল কবিরী, দেবাশীষ ভট্টাচার্য, আ ফ ম মোদাচ্ছের আলী, শেখর দেব, মুহাম্মদ মহিউদ্দিন, রাজীব রাহুল, বিদ্যুৎ দেব, হৃদয় ইসমাইল, রহমান রনি, বিবিকা দেব, আজাদ মণ্ডল, প্রমা দাশ, রুজি আফরোজ সহ মোট ৫১ জনের গল্প প্রকাশিত হয়েছে এ সংখ্যায়।
যারা গল্পের গলিতে হাঁটেন তাদের জন্য মনে করি কথাস্বর উচ্চমানের পত্রিকা। কেননা পাঠ করলে বুঝা যাবে, ঠকছেন নাকি নতুন নতুন বিষয় সম্পর্কে জেনেছেন। পত্রিকার প্রতিটি গল্পে চুম্বকীয় বাক্যের মালা গেঁথেছেন গল্পকাররা।
কাগজটির উপদেষ্টা সম্পাদক ড.ফয়সাল কামাল এবং আ. ফ. ম. মোদাচ্ছের আলী, সহকারী সম্পাদক হিসেবে ছিলেন শাহেজুল ইসলাম, আজাদ মণ্ডল ও সবুজ অরণ্য। তাদের প্ররিশ্রমে আগামী সংখ্যায় আরো সুন্দর রূপরেখায় সামনে আনবেন বলে সম্পাদকের প্রতি একান্ত কামনা। নামলিপি ও প্রচ্ছদ করেছেন রতন সাহা। ২১৬ পৃষ্ঠার কাগজটির বিনিময় মূল্য মাত্র একশত বিশ টাকা।