ট্রাফিক সপ্তাহে দু’দিনে ১৭০ মামলা

কক্সবাজারে জিপের ধাক্কায় ব্যবসায়ীর মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক, কক্সবাজার

কক্সবাজার শহরের কলাতলী বাইপাস সড়কের উত্তরণ আবাসন প্রকল্প এলাকায় জিপের ধাক্কায় আবদুর রশিদ কোম্পানি (৫৮) নামের এক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার রাত সোয়া ৯টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।
এদিকে, ট্রাফিক সপ্তাহের ৫ম ও ৬ষ্ঠ দিনে আইন অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে অভিযান চালিয়ে ১৭০টি মামলা দায়ের করেছে জেলা ট্রাফিক পুলিশ।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বৃহস্পতিবার রাত সোয়া ৯টার দিকে পেকুয়া মগনামার মরহুম লাল মিয়ার ছেলে ব্যবসায়ী আবদুর রশিদ বাসায় ফেরার পথে রাস্তা পার হচ্ছিলেন। এ সময় একটি জিপ তাকে সজোরে ধাক্কা দেয়। এতে তিনি রাস্তায় ছিটকে পড়েন। পরে স’ানীয় লোকজন তাকে গুরুতর আহতাবস’ায় উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। নিহত ব্যবসায়ীর মরদেহ ময়নাতদন্ত শেষে তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

এদিকে স’ানীয় জনতা ধাওয়া করে জিপটি আটক করলেও ঘাতক চালক পালিয়ে যায়।
কক্সবাজার সদর থানার ওসি ফরিদউদ্দিন খন্দকার জানান, ঘাতক জিপটি পুলিশি হেফাজতে রয়েছে। ঘটনার ব্যাপারে আইনগত ব্যবস’া নেয়া হয়েছে।

এদিকে, চলমান ট্রাফিক সপ্তাহে কক্সবাজার শহরের বিভিন্ন স’ানে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। ট্রাফিক সপ্তাহের ৫ম ও ৬ষ্ঠ দিনে আইন অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে অভিযান চালিয়ে ১৭০টি মামলা দায়ের করেছে জেলা ট্রাফিক পুলিশ। জেলা ট্রাফিক পুলিশের টিআই কামরুজ্জামান বকুল বলেন, মোট ১৭০টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার ও বৃহস্পতিবার দিনভর শহরের বাস টার্মিনাল, গুম গাছ তলা (বন বিভাগের সামনে), হাসপাতাল সড়ক ও কলাতলী এলাকায় জেলা ট্রাফিক পুলিশ কর্তৃক পরিচালিত অভিযানে এসব মামলা করা হয়। এসময় গাড়ির ফিটনেস, লাইসেন্স, ড্রাইভিং লাইসেন্স চেক করা হয়। এসব কাগজপত্র যাদের ঠিক ছিলনা সেসব গাড়ির বিরুদ্ধে মামলা দেয়া হয়েছে।
উল্লেখ্য, গত ২৯ জুলাই রাজধানীর বিমানবন্দর সড়কে জাবালে নূর পরিবহনের বেপরোয়া দুই বাসের পাল্টাপাল্টিতে চাপায় পড়ে দুই শিক্ষার্থী নিহত হওয়ার পর নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলনে নামে শিক্ষার্থীরা। এসময় শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন যানবাহনের লাইসেন্স পরীক্ষা করতে শুরু করে রাস্তায় দাঁড়িয়ে। বেশ কিছু গাড়ি ভাংচুরও হয়। তাদের আন্দোলনকে ট্রাফিক আইনের কঠোর প্রয়োগের ‘নৈতিক ভিত’ হিসেবে অভিহিত করে শনিবার ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া সারাদেশে পুলিশ সপ্তাহ পালনের ঘোষণা দেন। এরই অংশ হিসেবে কক্সবাজারেও পালিত হচ্ছে ট্রাফিক সপ্তাহ।