ওয়ানডেতে সেরা কোহলি টেস্টে স্মিথ

সুপ্রভাত ক্রীড়া ডেস্ক

হাতে মাত্র কয়েকটা দিন বাকি। ১৭ সেপ্টেম্বর শুরু হবে ভারত-অস্ট্রেলিয়া হাইভোল্টেজ ওয়ানডে সিরিজ। এ বছরের শুরুতে টেস্ট সিরিজে দুই দলের মধ্যে দুর্দান্ত লড়াই উপভোগ করেছিল ক্রিকেট দুনিয়া। একদিনের সিরিজেও তেমনই লড়াই প্রত্যাশা করা হচ্ছে। খবর বাংলানিউজ’র।
আসন্ন ওয়ানডে সিরিজে দুই দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলি ও স্টিভ স্মিথের উপর বাড়তি নজর থাকবে। কারণ, কে সেরা ব্যাটসম্যান, কে সেরা অধিনায়ক, এই প্রশ্নগুলো বার বার সামনে আসছে। অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়ক মাইকেল ক্লার্ক এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘একদিনের ক্রিকেটে বিরাট কোহলিই সেরা। কিন্তু টেস্টে স্টিভ স্মিথকে এগিয়ে রাখবো। অধিনায়ক হিসেবে দু’জনেই সমান। দু’জনেই প্রতিনিয়ত উন্নতি করছে। এই মুহূর্তে বিরাটকে কিছুটা এগিয়ে রাখতে হবে। কারণ, ওর নেতৃত্বে ভারত একটানা ম্যাচ জিতছে।’
ক্লার্ককে প্রশ্ন করা হয়েছিল, স্টিভ স্মিথের নেতৃত্বাধীন ভারত সফরে আসা এই অস্ট্রেলিয়া দলটাই কি সবচেয়ে দুর্বল? কারণ, এই দলটা চ্যাম্পিয়নস ট্রফির সেমি-ফাইনালেও উঠতে পারেনি। ক্লার্ক হাসতে হাসতে জানান, ‘আমি সত্যিই বোকা। আর বোকার মতো এই প্রশ্নের উত্তর দিয়ে কালকের খবরের কাগজের শিরোনাম তৈরি করে দিতে চাই না।’
তবে তিনি যোগ করেন, ‘এই অস্ট্রেলিয়া দলের অনেক কিছু প্রমাণ করার সুযোগ রয়েছে। এই দলে প্রতিভার কোনো অভাব নেই। সেটা ঠিকবাবে কাজে লাগানো দরকার।’
এই সিরিজে চোটের কারণে মিচেল স্টার্ক ও জস হ্যাজলউডকে পাচ্ছে না অস্ট্রেলিয়া। যা নিঃসন্দেহে তার দেশের কাছে বড় ধাক্কা বলেই মনে করেন ক্লার্ক। অস্ট্রেলিয়া যদি ৪-১ ব্যবধানে ভারতকে একদিনের সিরিজে হারিয়ে দিতে পারে, তাহলে র‌্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষে উঠে আসবে। ক্লার্ক এই প্রসঙ্গে বলেন, ‘ভারতের মাটিতে কোহলিদের হারানো মোটেই সহজ ব্যাপার নয়। তবে অস্ট্রেলিয়া ৪-১ ব্যবধানে সিরিজ জিতলে সেটা স্মিথদের কাছে অনেক বড় সাফল্য হবে। ২০১৯ বিশ্বকাপের আগে দলের মনোবল অনেকটাই বেড়ে যাবে।’