সফলতা পেতে সহযোগিতা চাইলেন সিডিএ চেয়ারম্যান

এলিভেটেট এক্সপ্রেসওয়ের পাইলিং কাজ উদ্বোধন

বিজ্ঞপ্তি

নগরের লালখান বাজার হতে শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর পর্যন্ত এলিভেটেডএক্সপ্রেসওয়ের পাইলিং কাজ উদ্বোধন করা হয়েছে। ১৮ কিলোমিটার এই এক্সপ্রেসওয়ে নির্মাণে ব্যয় হবে ৩২৫০ কোটি টাকা। কাঠগড় এলাকায় গতকাল পাইলিং কাজ উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান আবদুচ ছালাম।
উদ্বোধনকালে আবদুচ ছালাম বলেন, জনগণের সহযোগিতা নিয়ে আমরা এ বিশাল কাজ শুরু করছি। শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত কাজের সফলতা পেতে জনগণের সহযোগিতার বিকল্প নেই।
এসময় অন্যদের মধ্যে উপসি’ত ছিলেন সিডিএ বোর্ড সদস্য এম আর আজিম, সিডিএ চিফ ইঞ্জিনিয়ার হাসান বিন শামস, ওয়ার্ড কাউন্সিলর জয়নাল আবেদীন, কাউন্সিলর জিয়াউল হক সুমন, কাউন্সিলর শাহনুর বেগম, আওয়ামী লীগ নেতা হারুনুর রশীদ, সুলতান নাছির উদ্দিন, শফিউল আলম, শাহাদাত হোসেন, আবদুল রউফ প্রমুখ।
এক্সপ্রেসওয়ের গুরুত্ব ব্যাখ্যা করে সিডিএ চেয়ারম্যান আরও বলেন, চট্টগ্রাম আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর সড়ক দিয়ে বন্দর, ইপিজেড, কর্ণফুলী ইপিজেড ও বিভিন্ন বেসরকারি কনটেইনার ডিপো থেকে প্রতিদিন হাজার হাজার গাড়ি ঢুকে এবং বের হয়। এতে সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত লেগে থাকে তীব্র যানজট। বিশেষ করে বারিক বিল্ডিং মোড় থেকে সিমেন্ট ক্রসিং পর্যন্ত। দিনভর যানজটের কবলে থাকায় বহু যাত্রীকে ফ্লাইট মিস করতেও হয়। অন্যদিকে কর্ণফুলী শাহ আমানত সেতু দিয়ে দক্ষিণাঞ্চলের হাজার হাজার যাত্রী প্রতিদিন শহরে আসা-যাওয়া করেন। চাক্তাই দিয়ে প্রতিদিন শত শত ট্রাক, পিকআপ, ভ্যান, টেম্পো, মাইক্রো, কার, অটোরিকশা ঢুকে। এতে দক্ষিণাঞ্চলের যাত্রীদের যানজটে নাকাল হতে হয়। শাহ আমানত বিমানবন্দর থেকে সরাসরি কর্ণফুলী সেতু চলে যেতে পারলে আর কোনো যানজট থাকবে না।