এপিকের বৈশাখী আবাসন মেলা শুরু

বিজ্ঞপ্তি

আবাসন প্রতিষ্ঠান এপিক প্রপার্টিজ বাংলা নববর্ষে নিয়ে এসেছে জমজমাট আবাসন মেলা। ১৫ এপ্রিল দুপুরে এপিকের করপোরেট কার্যালয়ে এ মেলার উদ্বোধন করেন দৈনিক আজাদী সম্পাদক এম এ মালেক। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপসি’ত ছিলেন এপিক প্রপার্টিজের ব্যবস’াপনা পরিচালক প্রকৌশলী এস এম আবু সুফিয়ান, ডিরেক্টর প্রকৌশলী মো. আনোয়ার হোসেন, ভুমির মালিক- প্রকৌশলী এ এস এম নাছির উদ্দিন চৌধুরী, মো. মঈন উদ্দিন আহমেদ, এপিক প্রপার্টিজ এর হেড অব সেলস অ্যান্ড মার্কেটিং খুরশিদ আলমসহ এপিক প্রপার্টিজ এর উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপসি’ত ছিলেন।
মেলায় আজাদী সম্পাদক এম এ মালেক বলেন, ‘চট্টগ্রামসহ দেশের আবাসন খাতে এপিক সুনামের সাথে কাজ করছে। যে কারণে এপিক গ্রাহকদের মন জয় করেছে। মানসম্মত ফ্ল্যাট নির্মাণ ও হস্তান্তরের মাধ্যমে এপিক সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। এতে আবাসন সংকট ঘুচানোর পাশাপাশি দেশের অর্থনীতিকেও সমৃদ্ধ করছে এপিক।’
অনুষ্ঠানে এপিক প্রপার্টিজ এর ব্যবস’াপনা পরিচালক প্রকৌশলী এস এম আবু সুফিয়ান বলেন, ‘গ্রাহকদের সেবা দেয়ার ক্ষেত্রে নিজেদের মেধার পুরোটাই সন্নিবেশ ঘটানো হয়। প্রত্যেকটি প্রকল্প ও ফ্ল্যাট নির্মাণে মেধাবী প্রকৌশলীদের সমন্বয়ে নান্দনিক শৈলী ও গুণগত মানের প্রাধান্য দেয়া হয়। প্রতিযোগিতামূলক এ বাজারে গ্রাহকরা গুণ-মান বিচার করেই এপিককে বেছে নেবে বলে আমরা বিশ্বাস করি। নতুন বছরে আরো নতুন উদ্যোমে এপিক এগিয়ে যাওয়ার প্রত্যয় নিয়ে এ মেলার আয়োজন করেছে।‘
মেলায় ঢাকা ও চট্টগ্রাম মিলে ২১টিরও বেশি আবাসিক ও বাণিজ্যিক প্রজেক্ট নিয়ে এসেছে এপিক। এর মধ্যে চট্টগ্রামে চট্টেশ্বরী রোড, দেব পাহাড়, চন্দনপুরা, ফিরিঙ্গী বাজার, কালামিয়া বাজার, কাতালগঞ্জ আবাসিক এলাকা, চান্দগাঁও আবাসিক এলাকা, ও আর নিজাম রোড আবাসিক এলাকা, দক্ষিণ খুলশী, লালখান বাজার, নন্দন কানন এবং রাজধানী ঢাকায় বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা, উত্তরা, রামপুরা, কাওরান বাজারের মতো ব্যস্ততম এলাকায় এপিকের প্রজেক্ট রয়েছে। মেলা চলবে ২৫ এপ্রিল পর্যন্ত।