একালের বৈশাখ

সাইয়্যিদ মঞ্জু

চৈত্রের তীব্র খরায় নব এক বৈশাখের আবহ
রৌদ্রের বিচিত্র নৃত্যলীলা প্রকৃতির প্রাঙ্গনে
অসত্মমিত যৌবনে হালখাতা- চৈত্র সংক্রানিত্ম
কালের করাল গ্রাসে মাটির তৈজসপত্র
কবে যে নিজের জাত হারিয়েছে কুমার।

যে সুর মনের দ্যোতনায় –
সে সুর পুরানো ক্যাসেটের অচল ফিতায় বন্দি
ইলিশের শরীরে দাউ দাউ চৈত্র আগুন
গরমভাতেও বহে শীতল জলের তীব্র ঢেউ ।

মরিচপোড়ার ঘ্রাণে আসে একালের বৈশাখ
শাদা আর লাল পেড়ে সাজ
সাড়ম্বরে দেখি এসো হে বৈশাখ এসো ডাক