ইডিইউর মেধাবীদের নিয়ে কাজ করতে চায় রবি

ইস্ট ডেল্টা ইউনিভার্সিটির (ইডিইউর) মেধাবী শিক্ষার্থীদের নিয়ে কাজ করতে আগ্রহী দেশের অন্যতম মুঠোফোন সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান রবি আজিয়াটা লিমিটেড। কেবল চাকরি দিয়েই নয়, ছাত্র-ছাত্রীদের ক্যারিয়ার গঠনেও সব ধরনের সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করতে চায় বহুজাতিক প্রতিষ্ঠানটি। গতকাল মঙ্গলবার সকালে নগরীর খুলশীর পূর্ব নাসিরাবাদের নোমান সোসাইটির ইডিইউর স্থায়ী ক্যাম্পাসে জমজমাট আয়োজনে অনুষ্ঠিত হলো ‘রবি ক্যারিয়ার রোড শো’।
অনুষ্ঠানে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা ছাড়াও রবির জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। এই সময় ইডিইউ-র মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য স্কলারশিপ চালু করা যায় কি না তা ভেবে দেখার কথাও জানান রবির কর্মকর্তারা।
দেশের অনেক তরুণ বহুজাতিক এই প্রতিষ্ঠানে কাজ করার স্বপ্ন দেখেন প্রতিনিয়ত। তবে চাইলে তো আর সেখানে কাজের সুযোগ মেলে না। গুণগত মান ধরে রাখতে দক্ষ ও চৌকস কর্মী নিয়ে এগিয়ে যেতে চায় রবি। আর তাই এখানে কাজের সুযোগ পেতে হলে ইডিইউর ছাত্র-ছাত্রীদের কীভাবে প্রস্তুতি নিতে হবে তা নিয়ে অনুষ্ঠানটির আয়োজন করা হয়।
অ্যাসোসিয়েট প্রফেসর মোহাম্মদ রকীবুল কবির বলেন, ক্যারিয়ার জগতে মেধাবী শিক্ষার্থীদের দক্ষ করে গড়ে তুলতে রবির এমন উদ্যোগ প্রশংসনীয়। আমরা চাই ইডিইউর ভালো ফলাফলকারী শিক্ষার্থীদের মেধাবৃত্তি দিয়ে তাদের এগিয়ে নিয়ে যেতে নানা পরিকল্পনা নেবে প্রতিষ্ঠানটি।
রবির ভাইস প্রেসিডেন্ট জাবেদ পারভেজ বলেন, জীবনে প্রতিষ্ঠা পেতে হলে থাকতে হবে কাজের প্রতি নিষ্ঠা, পরিশ্রম আর সাফল্যে পৌঁছনোর বাসনা। ইডিইউর ছেলে মেয়েদের চোখে আত্মবিশ্বাসের ছাপ দেখে আমরা মুগ্ধ। চট্টগ্রাম নগরীর আঞ্চলিক ম্যানেজার আশরাফুল কবির বলেন, কেবল অ্যাকাডেমিক রেজাল্ট নয়, যে-কোনো প্রতিষ্ঠানে কাজ করার জন্য চাই ভালো উপস্থাপনা, কাজের সক্ষমতা ও যোগাযোগ দক্ষতা।
রবির এক্সটারনাল কমিউনিকেশনস আশিকুর রহমান বলেন, বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে চট্টগ্রামে কেবল ইডিইউকেই আমরা বেছে নিয়েছি। এই প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা কাজের প্রতি যেমন আগ্রহী, তেমনি চ্যালেঞ্জ নিতে ভালোবাসেন-কথা বলে অন্তত তাই মনে হয়েছে।
অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন রবির ম্যানেজার রিসোর্সিং উম্মে আয়মান তাসনিম, ইডিইউর শিক্ষিকা রওনক জাহান প্রমুখ। বিজ্ঞপ্তি