আলীকদম জেলা প্রশাসকসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে আদালতের নোটিশ

নিজস্ব প্রতিবেদক, বান্দরবান

বান্দরবানে প্যানেল চেয়ারম্যানকে আলীকদম ইউনিয়ন পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের দায়িত্ব না দেয়ায় জেলা প্রশাসক, ইউএনও, ইউনিয়ন পরিষদের পদত্যাগকারী চেয়ারম্যানসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে কারণ দর্শানোর নোটিশ জারি করেছে যুগ্ম জেলা জজ আদালত। গতকাল বুধবার দুপুরে বান্দরবান যুগ্ম জেলা জজ নিশাত সুলতানা আদালত এ আদেশ দেন।
জানা গেছে, আলীকদম সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জামাল উদ্দিন চৌধুরী উপজেলা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হওয়ায় ইউনিয়ন চেয়ারম্যানের পদ থেকে পদত্যাগ করেন। আলীকদম ইউএনও পদত্যাগপত্রটি গ্রহণ করেন। কিন’ পদত্যাগের সময় প্যানেল চেয়ারম্যান-১ আবদুল মতিন’কে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের দায়িত্ব বুঝিয়ে না দিয়ে নিয়ম বহির্ভূতভাবে রোববার (১৭ ফেব্রুয়ারি) তারই আশীর্বাদপুষ্ট ১ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আব্দুল মুবিন’কে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের দায়িত্ব হস্তান্তর করেন। প্যানেল চেয়ারম্যান ১, ২ এবং ৩ জনকে বাদ দিয়ে আইন বহির্ভূতভাবে এটি করা হয়েছে। এ ঘটনায় প্যানেল চেয়ারম্যান-১ আবদুল মতিন বাদি হয়ে চার জনের বিরুদ্ধে বান্দরবান যুগ্ম জেলা জজ আদালতে একটি মামলা করেন। আসামিরা হলেন, আলীকদম সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জামাল উদ্দিন চৌধুরী, ১ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আব্দুল মুবিন, আলীকদম ইউএনও এবং জেলা প্রশাসক। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে নোটিশ প্রাপ্তির আগামী ১ সপ্তাহের মধ্যে কারণ দর্শানোর আদেশ দেন।
মামলার বাদি আবদুল মতিন বলেন, আমি তিনবারের নির্বাচিত ইউপি সদস্য। ইউনিয়ন পরিষদের সদস্যদের ভোটে নির্বাচিত প্যানেল চেয়ারম্যান-১। আমি ছাড়াও আরো দুজন প্যানেল চেয়ারম্যান রয়েছেন। কিন’ পদত্যাগকারী চেয়ারম্যান জামাল উদ্দিন চৌধুরী প্যানেল চেয়ারম্যানের কাছে দায়িত্ব হস্তান্তর না করে নিয়ম বহির্ভূতভাবে তারই আশীর্বাদপুষ্ট ১ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আব্দুল মুবিনের কাছে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের দায়িত্ব হস্তান্তর করেন। প্যানেল চেয়ারম্যান হিসাবে নিয়ম তান্ত্রিকভাবে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের দায়িত্ব বুঝে পেতে আদালতে মামলা করেছি।
পদত্যাগকারী আলীকদম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জামাল উদ্দিন চৌধুরী বলেন, উপজেলা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত একজন চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী। সঙ্গত কারণেই চেয়ারম্যান পদ থেকে পদত্যাগ করেছি। পদত্যাগপত্র গ্রহণ করেছে ইউএনও। আগের প্যানেল চেয়ারম্যানদের বিরুদ্ধে ইউপি সদস্যরা অনাস’া দিয়ে নতুনভাবে প্যানেল চেয়ারম্যান নির্বাচিত করেছে। নতুন প্যানেল চেয়ারম্যানের কাছেই দায়িত্ব হস্তান্তর করেছি। এখানে কোনো স্বার্থ নেই। আইন অমান্য হলে দাবিদার ব্যক্তিকেই ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের দায়িত্ব দেয়া হোক, কোনো সমস্যা নেই।
আলীকদম নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মো. নাজিমুল হায়দার বলেন, প্যানেলের বাইরে কাউকে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের দায়িত্ব দেয়ার কোনো সুযোগ নেই। জেলা প্রশাসকের সঙ্গে কথা বলে প্রয়োজনীয় ব্যবস’া গ্রহণ করা হবে।