মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস ও সাহিত্য চর্চা পরিষদ’র আলোচনা সভা

আন্তর্জাতিক পণ্ডিত বিহার বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার দাবি

বিজ্ঞপ্তি

মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস ও সাহিত্য চর্চা পরিষদের উদ্যোগে আন্তর্জাতিক পণ্ডিত বিহার বিশ্ববিদ্যালয় পুনঃপ্রতিষ্ঠার দাবিতে ‘চট্টগ্রাম পণ্ডিত বিহার বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস’ শীর্ষক এক আলোচনা সভা সংগঠনের সভাপতি মো. সালাহ উদ্দিন লিটনের সভাপতিত্বে ও সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক এম. নুরুল হুদা চৌধুরীর সঞ্চালনায় আন্দরকিল্লাস’ মোজাহের ভবনে গতকাল বৃহস্পতিবার বিকাল ৫টায় অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে মুখ্য আলোচক হিসেবে উপসি’ত ছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের পালি বিভাগের চেয়ারম্যান ড. জিনবোধি ভিক্ষু। আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন লেখক, শিক্ষাবিদ অধ্যাপক ড. মাসুম চৌধুরী, চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও চ্যানেল আই এর ব্যুরো প্রধান চৌধুরী ফরিদ, দৈনিক সমকালের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার সুজিত কুমার দাশ, লেখক ও কলামিস্ট বীর মুক্তিযোদ্ধা কালাম চৌধুরী, বাণিজ্যিক রাজধানী চট্টগ্রাম বাস্তবায়ন পরিষদের যুগ্ম মহাসচিব ভূপেন দাশ, বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চারনেতা পরিষদ এর সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহিম, কধুরখীল বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় এর প্রধান শিক্ষক বাবুল কান্তি দাশ, আনোয়ারা উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগ নেত্রী সাজিয়া আক্তার, ডিজিটাল বাংলাদেশ পাবলিসিটি কাউন্সিলের সহ সভাপতি জসিম উদ্দিন চৌধুরী, ১৯নম্বর দক্ষিণ বাকলিয়া ওয়ার্ড মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদিকা কবি শবনম ফেরদৌসী, চট্টগ্রাম সাহিত্য পাঠচক্রের সাধারণ সম্পাদক আসিফ ইকবাল, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের পাঠাগার সম্পাদক রেজাউল করিম বাপ্পী, সাংবাদিক আশীষ নাথ, মহানগর ছাত্রলীগ নেতা বোরহান উদ্দীন গিফারী, দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগ নেতা মো. এনাম, মো. মাসুম, মহানগর জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টির আহ্বায়ক সোমিয়া সালাম, নারী নেত্রী সৈয়দা শাহানারা বেগম, রুমকি দাশগুপ্ত, ব্যাংকার মোরশেদুল ইসলাম চৌধুরী বাহাদুর, আনন্দ বোধি ভিক্ষু, যুবলীগ নেতা কামরুল মিন্টু, রিংকেল গুহ, হুমায়ুন মিঠু, বুলবুল ভট্টাচার্য্য, ভূপেন দাশ প্রমুখ।
সভায় বক্তারা বলেন, চট্টগ্রামের হাজার বছরের পুরাতন ঐতিহ্য চট্টগ্রাম পণ্ডিত বিহার বিশ্ববিদ্যালয়টি আন্তর্জার্তিক পণ্ডিত বিহার বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে পুনঃপ্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে সরকার দক্ষিণ চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলার দেয়াং পাহাড়ের দক্ষিণাংশে ঝিউরী এবং হাজিগাঁও এলাকায় পঞ্চাশ একর জমির উপর ইহা প্রতিষ্ঠা করার নিমিত্তে ব্যয় নির্ধারণ এবং বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন অত্র বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার জন্য একটি খসড়া আইন প্রণয়ন করে আন্তর্জার্তিক পণ্ডিত বিহার বিশ্ববিদ্যালয় নামে একটি বিশেষায়িত পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় স’াপন করার জন্য প্রধানমন্ত্রীর নীতিগত সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় রয়েছে। বক্তারা তা দ্রুত বাস্তবায়নের জোর দাবি জানায়।
সভায় আন্তর্জাতিক পণ্ডিত বিহার বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার দাবিতে আগামী ১৫ জুলাই চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদানের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।