আজ সাবিনাদের প্রতিপড়্গ নেপাল

সুপ্রভাত ক্রীড়া ডেস্ক

প্রতিপড়্গ এবার নেপাল। খেলাও তাদের মাঠে; স’ানীয় দর্শকের সামনে। বিষয়টা যে চ্যালেঞ্জিং তা মানছেন সাবিনা খাতুন। তবে নিজ দলের ওপর আস’া রেখে বাংলাদেশ জাতীয় মহিলা ফুটবল দলের অধিনায়ক ঘোষণা দিলেন লড়াইয়ের। নেপালের বিরাটনগরের শহীদ রঙ্গসালা স্টেডিয়ামে আজ শনিবার স’ানীয় সময় বেলা তিনটায় সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের ‘এ’ গ্রম্নপের সেরা হওয়ার লড়াইয়ে মুখোমুখি হবে দুই দল। গ্রম্নপ সেরা হতে গোল ব্যবধানে এগিয়ে থাকা নেপালের জন্য ড্র যথেষ্ট। গতবারের রানার্সআপ বাংলাদেশের সামনে জয় ছাড়া বিকল্প কোনো পথ নেই। সাফের ইতিহাসে নেপালকে কখনই হারাতে পারেনি বাংলাদেশ। ২০১০ ও ২০১৪ সালের আসরে সেমি-ফাইনালে দেখা হয়েছিল এবং দুবারই হেরেছিলেন সাবিনারা। স্বাগতিকদের তাই শক্তিশালী মেনে অধিনায়ক দিলেন লড়াই করার প্রতিশ্রম্নতি। ‘নেপাল স্বাগতিক, অনেক অভিজ্ঞ দল। তবে আমাদের দলের খেলোয়াড়দের বয়স এবং অভিজ্ঞতা কম থাকলেও আমাদের শক্তি আছে। এদিক দিয়ে আমরা এগিয়ে। আমি মনে করি ওরা শুধু আমাদের চেয়ে অভিজ্ঞতায় এগিয়ে। সব কিছু মিলিয়ে প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচ হবে। মিয়ানমারে গত নভেম্বরে অলিম্পিক বাছাইয়ে আমরা নেপালের সঙ্গে ড্র করেছি। সেটা প্রমাণ করে আমাদের দলের উন্নতি হয়েছে। মেয়েরা প্রস’ত আছে লড়াইয়ের জন্য। আমার মনে হয় নেপালকে হারানো অসম্ভব নয়।’
ভুটানের বিপড়্গে নেপালের জয়ে গোল করেছেন সাবিত্রা ভান্দারি ও নিরম্ন থাপা। এই দুই ফরোয়ার্ডের সঙ্গে মিডফিল্ডার রেনুকা নাগারকোটে বাংলাদেশের জন্য ভয়ঙ্কর হয়ে উঠতে পারে বলে টিম হোটেলে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলোচনায় জানান বাফুফের টেকনিক্যাল অ্যান্ড স্ট্রেটেজিক ডিরেক্টর পল স্মলি। খবর বিডিনিউজ’র।