টেরীবাজার ব্যবসায়ী সমিতির দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন

আজ ভোটগ্রহণ প্রার্থী ৪৭ জন

রুমন ভট্টাচার্য

টেরীবাজার ব্যবসায়ী সমিতির ৮ম দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন আজ সোমবার অনুষ্ঠিত হবে। এ লক্ষ্যে সকল প্রস’তি সম্পন্ন করেছে নির্বাচন কমিশন। নির্বাচনে প্রধান নির্বাচন কমিশনারের দায়িত্ব পালন করছেন আলহাজ মোহাম্মদ আলী, সহকারী নির্বাচন কমিশনার দায়িত্বে আছেন আবদুল হান্নান ও মো. ইসমাইল।
এবারের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচনে ৪৭ জন প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। মোট ভোটার সংখ্যা ১৮৬৭ জন। টেরীবাজার এলাকার ঘোষ মার্কেটের ৩য় তলায় আজ সোমবার সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত একটানা চলবে ভোটগ্রহণ।
এ বিষয়ে সহকারী নির্বাচন কমিশনার আবদুল হান্নান সুপ্রভাতকে বলেন, ‘আমাদের সব প্রস’তি সম্পন্ন। আজ সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ চলবে। এখানে কোনো শঙ্কা নেই। প্রার্থীদের মধ্যেও কারো কোনো বিরোধ নেই। তবে নিরাপত্তার স্বার্থে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী নিয়োজিত থাকবে। এ বিষয়ে আমরা প্রয়োজনীয় ব্যবস’া নিয়েছি।’
সমিতি সূত্রে জানা গেছে, এবার সভাপতি পদে ২ জন, সিনিয়র সহ-সভাপতি ২ জন, সহ-সভাপতি ৭ জন, সাধারণ সম্পাদক ৩ জন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ২ জন, সহ-সাধারণ সম্পাদক ৪ জন, সাংগঠনিক সম্পাদক ২ জন, অর্থ সম্পাদক ১ জন, আইন বিষয়ক সম্পাদক ২ জন, সমাজ কল্যাণ সম্পাদক ২ জন, প্রচার-প্রকাশনা সম্পাদক ৪ জন, দপ্তর সম্পাদক ৩ জন, অডিটর সম্পাদক ২ জন, সাহিত্য ও ধর্মীয় সম্পাদক ৩ জন, ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক ২ জন, কার্যনির্বাহী সদস্য পদে ৬ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।
নির্বাচন তফসিল অনুযায়ী গত ৩ ডিসেম্বর মনোনয়নপত্র সরবরাহ, ৪ ডিসেম্বর মনোনয়নপত্র দাখিল ও একইদিন বিকাল ৪টা থেকে বাছাই, ৫ ডিসেম্বর খসড়া তালিকা প্রকাশ, ৬ ডিসেম্বর দুপুর ২টা পর্যন্ত মনোনয়ন প্রত্যাহার এবং একইদিন বিকাল ৫টায় চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ, ৭ ডিসেম্বর প্রার্থীদের মাঝে প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়।
নির্বাচনকে সামনে রেখে গতকাল সকাল থেকে রাত পর্যন্ত শেষ মুহূর্তের প্রস’তিতে ব্যস্ত সময় পার করেছেন প্রার্থীরা। টেরীবাজার এলাকার বিভিন্ন মার্কেট চষে বেরিয়েছেন। ভোটারদের সাথে কুশল বিনিময় করে ভোট প্রার্থনা করেছেন। টেরীবাজার ব্যবসায়ী সমিতির নির্বাচন উপলক্ষে টেরীবাজার এলাকায় গত এক সপ্তাহের বেশি সময় ধরে চলছে সাজ সাজ রব। ব্যানার-পোস্টারে ছেয়ে গেছে মার্কেটের ভিতর থেকে বাহির পর্যন্ত। ভোটারদের মাঝেও আনন্দের কমতি নেই। গতকাল সকালে সরেজমিন টেরীবাজার এলাকায় গিয়ে এ দৃশ্য চোখে পড়ে।
নির্বাচনে সভাপতি পদপ্রার্থী (চেয়ার মার্কা) আলহাজ আমিনুল হকের কাছে জানতে চাইলে তিনি সুপ্রভাতকে বলেন, ‘মাঠে-ময়দানে আমার সমর্থন খুব ভালো। আশাকরি আল্লাহর রহমতে আমি জয়ী হব। আমি এর আগেও ৩ বার সিনিয়র সহ-সভাপতি ও সহ-সভাপতি ছিলাম। বহিরাগতদের নিয়ে একটু সমস্যা ছিল সেটা আমি নির্বাচন কমিশনারকে অবহিত করেছি।’
সহ-সভাপতি পদপ্রার্থী আলহাজ মুহাম্মদ মুছা (দেওয়াল ঘড়ি মার্কা) বলেন, ‘আমাদের নির্বাচনের পরিবেশ খুবই সুন্দর রয়েছে। এখানে কোনো বিরোধ নেই। গতবারের নির্বাচনও সুষ্ঠ ও সুন্দর পরিবেশে অনুষ্ঠিত হয়েছে। আশাকরি এবারও এর ব্যতিক্রম হবে না। আমাদের সমিতির নির্বাচন অন্যদের কাছে অনুকরণীয়।’
সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী আলহাজ আবদুল মান্নান (আনারস মার্কা) বলেন, ‘টেরীবাজার ব্যবসায়ী সমিতির নির্বাচনে কোনো কাদা ছোঁড়াছুঁড়ি নেই। এটি বন্ধুত্বপূর্ণ নির্বাচন। এখানে কোনো রাজনীতি নেই। আর নির্বাচন কমিশনাররা অভিজ্ঞতাসম্পন্ন। আগামীকাল (আজ) উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট অনুষ্ঠিত হবে। ব্যবসায়ী ও কর্মচারীদের কল্যাণের জন্য প্রতি দু’বছর পর পর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।’