অপহৃত গৃহবধূর মুক্তি ও রবিউলের খুনিদের আটকের দাবিতে আল্টিমেটাম

নিজস্ব প্রতিবেদক, খাগড়াছড়ি

খাগড়াছড়িতে গৃহবধূ ফাতেমার মুক্তি এবং গুইমারায় মোটর সাইকেলচালক রবিউল হত্যায় জড়িত সন্ত্রাসীদের গ্রেফতারে ৭২ ঘন্টার আল্টিমেটাম দিয়েেেছ বাঙালি ছাত্র পরিষদ। মঙ্গলবার জেলাশহরে আয়োজিত মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে অভিযোগ করা হয়, গত ৮ সেপ্টেম্বর গুইমারা বাইল্যাছড়ি এলাকায় চলন্ত বাস থামিয়ে স্বামীর সামনে থেকে গৃহবধূ ফাতেমাকে অপহরণ করে সন্ত্রাসীরা। এছাড়া মঙ্গলবার সকালে গুইমারার সিন্ধুকছড়ি এলাকায় মোটরসাইকেল চালক ও গুইমারা সদর ইউনিয়ন ছাত্রদলের সহসভাপতি রবিউলের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের গ্রেফতারসহ শাস্তি নিশ্চিতের দাবি করেছে সংগঠনটি।
এ সময় গৃহবধূ ফাতেমাকে অক্ষত উদ্ধার করতে প্রশাসন ব্যর্থ হলে বা তার কোন ক্ষতি হলে পাহাড়ে দুর্বার আন্দোলনের হুশিয়ারি জানানো হয়। খাগড়াছড়ির শাপলা চত্বরে মানববন্ধন থেকে বাঙালি ছাত্র পরিষদের নেতাকর্মীরা এ ঘোষণা দেন। পার্বত্য বাঙালি ছাত্র পরিষদের খাগড়াছড়ি জেলা কমিটির সভাপতি লোকমান হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় সভাপতি আব্দুল মজিদ। সংগঠনের জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক আসাদ উল্লাহ আসাদ এবং অপহৃত গৃহবধূর স্বামী নাজমুল হোসেনও সভায় বক্তব্য রাখেন।
সমাবেশে বক্তারা অভিযোগ করেন, পাহাড়ে সন্ত্রাসীরা একের পর এক অপহরণ, বাঙালি হত্যা, বেপরোয়া চাঁদাবাজিসহ ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করে চলেছে। তাই দ্রুত অবৈধ অস্ত্র উদ্ধারসহ নিরীহ মানুষদের গুম, খুন ও হত্যা বন্ধ না হলে তাদের প্রতিরোধে পাহাড়ের বাঙালিরা আইন নিজের হাতে তুলে নিতে বাধ্য হবে। সমাবেশে আগামী ৭২ ঘন্টার মধ্যে রবিউলের খুনিদের গ্রেফতার ও ফাতেমা বেগমকে অক্ষত অবস্থায় উদ্ধার না হলে পুরো পার্বত্য চট্টগ্রামকে অচল করে দেয়ার হুঁশিয়ারি ব্যক্ত করা হয়।