‘অনেক প্রতিষ্ঠানে বৈধ ফিজিওথেরাপিস্ট নেই’

সিপিআরসি এবং চট্টগ্রাম সাগরিকা রোটারি ক্লাবের সৌজন্যে রাঙামাটি পাবর্ত্য জেলার আিিশকা মানবিক উন্নয়ন কেন্দ্রের হল রুমে স্বাস্থ্য সহকারী ও পল্লী চিকিৎসকদের সমন্বয়ে ফিজিওথেরাপি চিকিৎসা, পেশা, প্রয়োজনীয়তা, সচেতনতা ও প্রচারণা বিষয়ক এক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা সাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা বিষয়ক কর্মকর্তা ডা.রুহি বনানী । বিশেষ অতিথি ছিলেন প্রফেসর ড. মো. তৈয়ব চৌধুরী, রোটারিয়ান আমিন সোহেল, ডা. উক্রাচিং মারমা। এছাড়া আরো উপস্থিত ছিলেন পূর্ববর্তী দুই প্রেসিডেন্ট রোটারিয়ান নুর মাহাম্মদ ও রোটারিয়ান আজিজুল ইসলাম বাবুল।
সেমিনারে সভাপতিত্ব করেন সিপিআরসি চেয়ারম্যান মো. কামরুজ্জামান, চেয়ারম্যান । ফিজিওথেরাপি সচেতনতামূলক সেমিনারে মূল তথ্য উপাত্ত সহকারে বিস্তারিত তুলে ধরেন ডা. মো. কামরুজ্জামান। সঞ্চালনায় ছিলেন ডা. ঝুমালিয়া চাকমা। সেমিনারে বক্তারা বলেন, বিভিন্ন ধরনের বাত, ব্যথা প্যারালাইসিস, আঘাত জনিত ব্যথা, বয়স্কজনিত সমস্যা, স্পোর্টস ইনজুরি, আইসিইউতে চেস্টথেরাপি, স্ট্রোকজনিত হ্যামিপ্লাজিয়া, হাত পা অবশ, জিবিএস, মুখ বেকে যাওয়া, প্রতিবন্ধী যেমন শিশুদের জন্মগত সমস্যা, সেরিব্রাল পাল্‌সি/ সিপি রোগীদের চিকিৎসা ও পুনর্বাসনে ফিজিওথেরাপি চিকিৎসার গুরুত্ব অপরিসীম। তাছাড়া অনেক ক্ষেত্রে ফিজিওথেরাপিই একমাত্র চিকিৎসা বলে বিবেচিত হচ্ছে”। এমন স্পর্শকাতর ইস্যুকে ব্যবহার করে অনেক হাসপাতাল, ডায়াগনস্টিক সেন্টার, প্রতিবন্ধী সংগঠন, এনজিও প্রতিষ্ঠান, প্রাইভেট প্রতিষ্ঠান ফিজিওথেরাপি যন্ত্রপাতি কিনে ফিজিওথেরাপি চিকিৎসা দিয়ে যাচ্ছে, অথচ অনেক প্রতিষ্ঠানে আইন বিধি মোতাবেক ফিজিওথেরাপিস্ট নেই। ওয়ার্ডবয়, আয়া কিংবা টেকনোলজিস্টদের ফিজিওথেরাপিস্ট পরিচয় করিয়ে দিয়ে রোগীদের ফিজিথেরাপি চিকিৎসা সেবা দেওয়া হচ্ছে। এতে অনেক ক্ষেত্রে রোগীদের ক্ষতি হচ্ছে।
ফলে বদনাম হচ্ছে ফিজিওথেরাপি চিকিৎসা পেশার । তাই এমন অপচিকিৎসা দূর করতে হলে সাধারণ মানুষের মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টি করতে হবে । উল্লেখ্য, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নির্দেশনা অনুসারে ফিজিওথেরাপি চিকিৎসা কেবল বিপিটি ডিগ্রিপ্রাপ্ত ফিজিওথেরাপিস্টদের তত্ত্বাবধানে করতে হবে।
ফিজিওথেরাপি সচেতনতা মূলক সেমিনারে মূল তথ্য উপাত্ত তুলে ধরেন ডা. মো. কামরুজ্জামান। সেমিনারে সঞ্চালনার দায়িত্বে ছিলেন ডা. ঝুমালিয়া চাকমা। বিজ্ঞপ্তি

আপনার মন্তব্য লিখুন